সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪

প্রেস বিজ্ঞপ্তি।।

ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ৭ম সমাবর্তন অনুষ্ঠান ২৫ ফেব্রæয়ারি ২০২৪ (রবিবার), সকাল ৯:০০টায় ইউআইইউ ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য ও মহামান্য রাষ্ট্রপতি মোঃ সাহাবুদ্দিনের পক্ষে তাঁর প্রতিনিধি হিসেবে মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী জনাব মহিবুল হাসান চৌধুরী, এম.পি সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আলমগীর। সমাবর্তন বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির প্রফেসর ইমেরিটাস এবং পানি সম্পদ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ড. আইনুন নিশাত ।

সভাপতির বক্তৃতায় মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী জনাব মহিবুল হাসান চৌধুরী, এম.পি বলেন- শিক্ষার্থীদের দক্ষতা না থাকলে শুধুমাত্র উ”চ শিক্ষা দিয়ে কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা কঠিন হয়ে পড়বে। এজন্য তিনি শিক্ষার্থীদেরকে উচ্চ শিক্ষা অর্জনের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের সফট স্কিল, মূল্যবোধ এবং ভাষা অর্জনের তাগিদ দিয়েছেন। এছাড়াও তিনি বৈশ্বিক নাগরিক হিসাবে নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করার ক্ষেত্রে দেশের সামাজিক পরিবর্তন, অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং আধুনিকায়নে নবীন গ্র্যাজুয়েটদের কাজ করার আহবান জানান।

উক্ত সমাবর্তন অনুষ্ঠানে ৩৯৫৪ জন শিক্ষার্থীকে গ্র্যাজুয়েশন ও পোষ্ট গ্র্যাজুয়েশন ডিগ্রি এবং কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলের জন্য চারজন শিক্ষার্থীকে স্বর্ণপদক প্রদান করা হয়। সমাবর্তন অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর চেয়ারম্যান জনাব হাসান মাহমুদ রাজা এবং ইউআইইউ’র ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোঃ আবুল কাশেম মিয়া।

বিশেষ অতিথি অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আলমগীর নতুন গ্রাজুয়েটদের উদ্দেশ্য বলেন আজকের এই অর্জিত জ্ঞান ও দক্ষতা শুধু ব্যক্তি সমৃদ্ধির কাজে নয় বরং সমাজ বা জাতি উন্নয়নের জন্যও কাজ করতে হবে।

সমাবর্তন বক্তা হিসেবে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির প্রফেসর ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. আইনুন নিশাত ৭ম সমাবর্তনে ডিগ্রী প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানান এবং তাদের কর্মক্ষেত্রে সফলতা কামনার পাশাপাশি দেশের কল্যাণে একনিষ্ঠ ভাবে কাজের পরামর্শ দেন।

ইউআইইউ’র বোর্ড অব ট্রাস্টিজ’র চেয়ারম্যান জনাব হাসান মাহমুদ রাজা বলেন - ইউআইইউ’র গ্রাজুয়েটরা তাদের পেশাগত প্রচেষ্টা এবং কৃত্বিতের মাধ্যমে তাদের পরিবার এবং দেশের জন্য গর্ব বয়ে আনবে।

ইউআইইউ’র ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোঃ আবুল কাশেম মিয়া শিক্ষার্থীদেরকে ভালো মানুষ হওয়ার পাশাপাশি সমাজ ও দেশের মানুষের কল্যাণে নিজেদেরকে আত্বনিয়োগ করার আহবান জানান।

সমাবর্তন অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর, ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সম্মানিত সদস্যবৃন্দ, সকল অনুষদের ডীন, বিভাগীয় প্রধানগণ, শিক্ষক-শিক্ষিকা, কর্মকর্তা-কর্মচারী, সাংবাদিক, শিক্ষাবিদ ও সমাজের বিভিন্ন স্তরের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

শিবা/জামান/২৬.০২.২৪

লেনিন জাফর,  মাগুরা।।

'ভালো কাজের নাগরিক অনুশীলন, স্বীকৃতি দিবে জেলা প্রশাসন ' এই প্রতিপাদ্য নিয়ে মাগুরায় ১৮টি প্রতিষ্ঠান   ও ব্যক্তিকে স্বীকৃতি প্রদান করেছে মাগুরা জেলা প্রশাসন। ২৫ফেব্রুয়ারী রবিবার বিকেলে  মাগুরার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ  আবু নাসের বেগ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ খায়রুল আলম শেখ।

বিশেষ অতিথি ছিলেন সমাজ সেবা অধিদপ্তরের খুলনা বিভাগীয় পরিচালক অনিন্দিতা রায়, মাগুরার পুলিশ সুপার মোঃ মসিউদ্দৌলা রেজা,  অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আব্দুল কাদেরসহ অন্যরা। অনুষ্ঠান থেকে মাগুরার বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক বিদ্যালয় কে অটিজম আক্রান্ত  শিশুদের সমাজের মূল ধারায় ফিরিয়ে আনতে দীর্ঘ বছর ধরে প্রায় বিনামূল্যে সেবা দেয়ার জন্য স্বীকৃতি প্রদান করা হয়।

একইভাবে মাগুরার মানুষকে একটি পরিচ্ছন্ন জেলা উপহার দেয়ার জন্য নিরলস কাজ করার জন্য বিডি ক্লিন মাগুরা টিম, দীর্ঘ বছর মাগুরার মানুষকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে গরিবের ডাক্তার হিসেবে পরিচিতি পাওয়া মাগুরা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালের প্রথম পরিচালক ডা: সুশান্ত কুমার বিশ্বাস,  মাগুরার ইতিহাস ও ঐতিহ্য নিয়ে কাজ করা ডা: কাজী তোসুকুজ্জামান,  চিত্রশিল্পী ও ভাস্কর জগদীশ অধিকারীসহ ১৮ জনকে স্বীকৃতি দেয়া হয়।  স্বীকৃতির স্মারক হিসেবে প্রত্যেককে একটি করে ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ও টি-শার্ট উপহার দেয়া হয়।

গতবছর ২৬ মার্চ থেকে মাগুরা জেলা প্রশাসকের উদ্যোগে সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য জেলার বিভিন্ন এলাকার উল্লেখযোগ্য মানুষকে ভালো কাজের স্বীকৃতি দিয়ে আসছে। এর ফলে মানুষ ভালো কাজ করতে আরো বেশি উৎসাহিত হবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন অতিথিবৃন্দ। সমাজকল্যাণ সচিব তার বক্তব্যে বলেন -দেশের মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে সরকার  বিশেষ ভূমিকা রাখছে।

এ উন্নয়ন অগ্রগতি অব্যাহত রাখতে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় বিশেষভাবে কাজ করছে। মাগুরা জেলাকে একটি উন্নত জেলা হিসেবে গড়ে তুলতে যা কিছু লাগবে সবই আমরা করব বলে আশ্বাস দেন তিনি।

শিবা/জামান/২৬.০২.২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

ইরানে কোরআন প্রতিযোগিতায় বিশ্বের ৮০টি দেশকে হারিয়ে প্রথম স্থান অধিকার করা বাংলাদেশের বিশ্বজয়ী হাফেজ বশির আহমেদকে ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে ফুলের শুভেচ্ছা ও সংবর্ধনা দেওয়া হবে।

আজ সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৩টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিন প্রাঙ্গণে তাকে এ সংবর্ধনা দেওয়া হবে। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান। বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন ছাত্রলীগের মাদ্রাসা শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক জহিরুল ইসলাম।

ছাত্রলীগের এই নেতা বলেন, হাফেজ বশির আহমেদকে ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে একটি গিফট বক্স দেওয়া হবে। গিফটের মধ্যে বই, পাঞ্জাবির কাপড়, জায়নামাজ, টুপি, কোরআন শরীফসহ আরো অনেক কিছু থাকবে।

এর আগে, সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ইরানে আয়োজিত আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম হন বাংলাদেশের হাফেজ বশির আহমদ। হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার বেগুনাই গ্রামের সহকারী অধ্যাপক মাওলানা মো. আব্দুর রশিদ ও বুশরা চৌধুরীর ছেলে হাফেজ বশির মারকাজুত তাহফিজ ইন্টারন্যাশনাল মাদরাসার ছাত্র।

এই প্রতিযোগিতার ১০ দিন আগেই আলজেরিয়ার রাজধানী আলজিয়ার্সে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অর্জন করেন হাফেজ বশির। পাশাপাশি ২০২১ সালে এন টিভিতে তিনি প্রথম হয়েছিলেন এবং ২০২২ সালে হুফফাজুল কোরআন ফাউন্ডেশনের প্রতিযোগিতায়ও তার প্রথম স্থান অর্জন করার রেকর্ড রয়েছে।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/জামান/২৬/০২/২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

পিরোজপুর: পিরোজপুরের নাজিরপুরে সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে নকল করতে না দেওয়ায় সেখানের দায়িত্বে থাকা ট্যাগ কর্মকর্তাকে লক্ষ্য করে ইট নিক্ষেপ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ওই কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের গণিত দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা শেষে।

এ ঘটনায় ট্যাগ কর্মকর্তা উপজেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা (এটিইও) মো. মামুন রহমান হাওলাদার থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

ওই ডায়েরি সূত্রে জানা গেছে, ওই দিন এটিইও পরীক্ষা শেষে মোটরসাইকেল নিয়ে বের হচ্ছিলেন। এ সময় তাকে লক্ষ্য করে কেন্দ্রের তৃতীয় বা চতুর্থ তলা থেকে ইট নিক্ষেপ করা হয়।

মামুন রহমান হাওলাদার জানান, পরীক্ষায় নকল করতে দিইনি বলে আমাকে লক্ষ্য করে ইট ছোড়া হয়েছে। পরীক্ষাকেন্দ্রে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা থাকার নির্দেশ থাকলেও তা উদ্দেশ্যমূলকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছে। যে কারণে কে বা কারা এমনটি করেছে জানা যায়নি।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাতিমা আজরিন তন্বী বলেন, খবর পেয়ে সরেজমিনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এ ব্যাপারে একটি জিডি করা হয়েছে। অভিযুক্ত হিসেবে এখনবধি কাউকে শনাক্ত করা যায়নি।

এ ব্যাপারে ওই টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী মো. মোস্তাফিজুর রহমান খান বলেন, কেউ ওই ট্যাগ কর্মকর্তাকে উদ্দেশ্য করে ইট নিক্ষেপ করেনি। আর বৃষ্টির কারণে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা নষ্ট ছিল। মিস্ত্রী এনে তা ঠিক করা হচ্ছে।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/জামান/২৬/০২/২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

কোটি মুসলিমের প্রাণের স্পন্দন, হৃদয়ের নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) রোজার মাস শুরু হওয়ার আগেই এর প্রস্তুতি নিতেন। তাকে অনুসরণ করে প্রতিটি রোজা প্রত্যাশীদের নিজের প্রস্তুতি নিয়ে রাখা ভালো।

রজব মাস (শাবান মাসের আগের মাস) এলেই মহানবী দোয়া করতেন, ‘আল্লাহুম্মা বারিক লানা ফি রাজাবা ওয়া শাবান- ওয়া বাল্লিগনা রমাজান। ’
অর্থ: হে আল্লাহ! আপনি আমাদের রজব ও শাবান মাসের বরকত দান করুন এবং আমাদেরকে রমজানে পৌঁছে দিন।

শাবান মাস (রমজান মাসের আগের মাস) থেকে তিনি আরও অধিক ইবাদতে মনোনিবেশ করতেন যাতে করে মহামূল্যবান রমজান থেকে সর্বোচ্চ ফায়দা নিতে পারেন। তাই আমাদেরও এ ব্যাপারে সচেতন হতে হবে, মানসিক প্রস্তুতি গ্রহণ করতে হবে, নিতে হবে বিশেষ পরিকল্পনা। সে লক্ষ্যে পবিত্র রমজানের আগে আমাদের করণীয় হলো—

এক. বিশেষ কোনো সফর বা বড় ধরনের কোনো কাজ থাকলে রমজানের আগে বাড়তি শ্রম দিয়ে তা সেরে ফেলা।

দুই. রোজার জন্য প্রয়োজনীয় কেনাকাটা রোজার আগেই শেষ করা।

তিন. রমজানটা আপনি কিভাবে কাটাবেন- সেজন্য দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ হোন ও একটি পরিকল্পনা করুন। এ পরিকল্পনা আপনাকে দ্বীনের পথে অগ্রসর হতে সহায়তা করবে। রমজানের পরিকল্পনায় নিম্নোক্ত বিষয়গুলো রাখা যেতে পারে—

পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত : রমজান মাসে আপনি কতটুকু কোরআন তেলাওয়াত করতে চান তা আপনার শক্তি, সামর্থ্য ও সময় বিবেচনায় রাখুন।

কোরআন অধ্যয়ন : পবিত্র রমজানে কোরআন নাজিল হয়েছে মানুষের হেদায়েতের জন্য। তাই অর্থ ব্যাখ্যাসহ কোরআন বোঝা একান্ত জরুরি। এ মাসে অবশ্যই একটা উল্লেখযোগ্য সময় আল্লাহর কালাম বোঝার জন্য বরাদ্দ করুন।

সহিহ তেলাওয়াত শিক্ষা : সহিহ তেলাওয়াত বিশুদ্ধ নামাজের শর্ত। এ পবিত্র রমজানে আপনি মহল্লার মসজিদে রমজান উপলক্ষে আয়োজিত কোরআন প্রশিক্ষণ ক্লাসে সব জড়তা ঝেড়ে ফেলে শামিল হোন। অথবা একজন ভালো কারীর কাছে ব্যক্তিগতভাবে বিশুদ্ধ তেলাওয়াতের প্রশিক্ষণ নিন। নিবিড় প্রচেষ্টা চালালে এক মাসেই আপনি বিশুদ্ধ তেলাওয়াত শিক্ষায় একটা ন্যূনতম মানে চলে আসতে পারবেন। যারা জানেন তারাও এ মহৎ কর্মে অংশ নিলে তা আপনাদের তেলাওয়াতের মানকে আরও সুন্দর করবে।

তাফসির, হাদিস, ইসলামি সাহিত্য ক্রয় : এ মাসে বিভিন্ন ইসলামি প্রকাশনা তাদের সাহিত্যে ৫০ থেকে ৬০ শতাংশ কমিশন দেয়। আপনি সুযোগটি গ্রহণ করুন। পবিত্র কোরআনের পূর্ণাঙ্গ তাফসির, সিহাহ সিত্তার হাদিস সমগ্র ও ইসলামি আদর্শের মৌলিক গ্রন্থাবলী কেনার জন্য আপনি উল্লেখযোগ্য পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ করুন এবং সম্ভব হলে রমজানের আগেই তা কিনে ফেলুন। এ বইগুলো আপনার জ্ঞানকে করবে সমৃদ্ধ, চরিত্রকে করবে মার্জিত। একই সাথে এ বইগুলো আপনার ব্যক্তিগত পাঠাগারে শ্রীবৃদ্ধির পাশাপাশি পরিবার পরিজনের মধ্যে দ্বীনের সৌরভ ছড়িয়ে দিয়ে আপনার জন্য সাদকায়ে জারিয়ার ব্যবস্থা করবে।

নফল ইবাদত : তারাবি, নফল ইবাদত ও দান সদকার ব্যাপারেও আপনি পরিকল্পনা নিতে পারেন। এ পরিকল্পনা আপনাকে অলসতা থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করবে। আপনি জাকাতের দাতা হলে জাকাত হিসাব-নিকাশ ও বিলিবণ্টনের কাজটি এ মাসে সেরে নিতে পারেন। এ মাসের একটি বিশেষ ফজিলত হলো এ মাসে একটি ফরজ ৭০টি ফরজ আদায়ের সমান এবং একটি নফল একটি ফরজ আদায়ের সমান সওয়াব।

তাই এ মাসে এমন একটি অবারিত সুযোগ গ্রহণে আমাদের উৎসাহী হওয়া একান্ত জরুরি। সেহরির কারণে এ মাসে তাহাজ্জুদ নামাজ আদায় করা খুবই সহজ। কিন্তু অনেকেই এ সময়ে রেডিও-টিভির সেহেরি অনুষ্ঠান শোনা ও দেখায় ব্যস্ত হয়ে পড়েন। এতে ইসলামি জ্ঞান বৃদ্ধি পাবে, সওয়াবও হবে কিন্তু হাদিস অনুযায়ী আপনি বেশি লাভবান হবেন যদি এ সময়টা আপনি নামাজ, কোরআন তেলাওয়াত, জিকির, দোয়া-দরুদ পাঠ ও আল্লাহর দরবারে গোনাহ মাফ, তওবা ও কান্নাকাটি করে কাটান।

ইতেকাফ : রমজানে ইতেকাফ করতে চাইলে আপনাকে তারও দৃঢ় পরিকল্পনা করতে হবে এবং সে নেক ইচ্ছাকে বাস্তবায়নের জন্য প্রয়োজনীয় পারিবারিক কাজগুলোও আপনাকে আগেই শেষ করতে হবে।

পারিবারিক সংশোধন : রমজানে আপনি পারিবারিক সংশোধনের জন্য বিশেষ উদ্যোগ নিতে পারেন। এ জন্য আপনি দিনের একটি নির্দিষ্ট সময় তালিমের জন্য বেছে নিন। এ ব্যাপারে পরিবারের সদস্যদের মতামত নিলে সবার পক্ষ থেকে সাড়া পাবেন। কারণ পবিত্র রমজানে মানুষের মধ্যে দ্বীনের কথা শোনার আগ্রহ বৃদ্ধি পায়।

রমজানের পবিত্রতা রক্ষা :

রমজানের পবিত্রতা রক্ষায় বিশেষ পরিকল্পনা নিন। কোনো বদ অভ্যাস থাকলে তা ছাড়ার দৃঢ় সিদ্ধান্ত নিন। পরিবারের সদস্যদের মধ্যে কেউ যাতে রোজাহীন না থাকে তার জন্য রমজানের আগেই তাদের সতর্ক করুন। আপনার পয়সায় আপনার ঘরে দিনের বেলায় পবিত্র রমজানে শিশু ও অক্ষম বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের ছাড়া অন্যের অন্ন সংস্থানের সব পথ বন্ধ করে দিন। এ ক্ষেত্রে আপনার ব্যক্তিত্ব, কঠোরতা ও দরদভরা উপদেশ সবাইকে রোজা রাখতে উদ্বুদ্ধ করবে। এ ব্যাপারে রমজানের আগেই যাথার্থ্য পরিবেশ তৈরি করুন।

মনে রাখবেন বকাঝকা ও রাগারাগি আপনার মহৎ ইচ্ছাকে ব্যর্থ করে দিতে পারে। সমাজে আপনার দায়িত্বের পরিধি যত বেশি, রমজানের পবিত্রতা রক্ষায় আপনার কর্তব্যও তত বেশি। রমজানের আগে গৃহীত পরিকল্পনা প্রতিদিন সম্ভব না হলেও অন্তত সপ্তাহে এক দিন আপনি পর্যালোচনা করুন।

কোথাও গাফলতি থাকলে তা দূর করুন। আপনার নেক পরিকল্পনার সফল বাস্তবায়নের জন্য আল্লাহর সাহায্য কামনা করুন। পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আমাদের ঐকান্তিকতা ও নিষ্ঠা একান্ত জরুরি। খালেসভাবে আল্লাহর পথে আগাতে চাইলে আল্লাহ অবশ্যই আমাদের সাহায্য করবেন।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/জামান/২৬/০২/২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) বাসের সিটে বসাকে কেন্দ্র করে এক শিক্ষার্থীকে শ্বাসরোধের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে শাখা ছাত্রলীগের দুই কর্মীর বিরুদ্ধে।

এ ঘটনার বিচারের দাবিতে গত শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী আবু জাহেদ। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত রিহাব মাহমুদ ও রতন রায় উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী এবং শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাতের অনুসারী। এই অভিযোগ অস্বীকার করে এটিকে মিথ্যা ও অতিরঞ্জিত দাবি করে পাল্টা অভিযোগ দিয়েছে অভিযুক্তরা।

লিখিত অভিযোগে আবু জাহেদ জানান, গত বৃহস্পতিবার দুপুর ৩টার বাসে ক্যাম্পাস থেকে কুষ্টিয়া শহরে যাওয়ার জন্য ভুক্তভোগীর জন্য দু’টি সিট রাখেন তার বন্ধু। পরে এর একটিতে নিজে বসে এবং পাশের সিটে অভিযুক্ত রতন রায়কে বসতে দেন। পরে রতন তার কিছু বন্ধু-বান্ধবী নিয়ে এসে ভুক্তভোগীকে পাশের সিটে বসতে বলে। এতে ভুক্তভোগী রাজি না হওয়ায় উভয়ের মধ্যে কথা-কাটাকাটি শুরু হয়। একপর্যায়ে ভুক্তভোগীর গলা টিপে ধরে রতন। এসময় তার সঙ্গে থাকা অপর বন্ধু রিহাব মাহমুদ চোখে আঙ্গুল ঢুকিয়ে দেয়। পরে বাসের সবাই চিল্লাচিল্লি শুরু করে ভুক্তভোগীকে ছাড়িয়ে নেয়।

এদিকে এ ঘটনায় পাল্টা অভিযোগ করেন অভিযুক্ত রতন রায়, রেদওয়ান মাহমুদ ও তাদের সঙ্গে থাকা দুই মেয়ে। পাল্টা লিখিত অভিযোগে তারা বলেন, জাহেদের বর্ণিত ঘটনা মিথ্যা, বানোয়াট ও অতিরঞ্জিত। আমাদের সাথে থাকা দুই বোনের একজনকে তিন সিটের মাঝের সিটে বসতে দেই। তার দুই পাশে দু’জন ছেলে থাকায় আমরা ওই ছেলেকে একপাশে চেপে বসতে বললে সে সিট ছাড়তে অস্বীকৃতি জানায়। পরে ঝামেলা বড় হতে পারে ভেবে আমরা তার গায়ে থাকা জার্সির একহাতা ধরে বাসের উপর তলায় বসিয়ে দিয়ে আসি। এসময় গলা টিপে ধরার মতো কোনো ঘটনা ঘটেনি।

এবিষয়ে আবু জাহেদ বলেন, ‘আমাকে এমনভাবে গলা চেপে ধরেছে যে আর ৯-১০ সেকেন্ড থাকলে আমি মারা যেতাম। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।’

এদিকে অভিযুক্ত রতন বলেন, আমরা শুধু সেই ছেলেকে বলেছিলাম যে মাঝের সিটে বসতে মেয়েটিকে এক সাইডের সিটে বসতে দিতে। কিন্তু সে রাজি হয়নি। পরে তার সেশন জানতে চাওয়ায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে আমদের দিকে তেড়ে আসে। তাকে গলা চেপে ধরা হয়নি শুধু তার জামার কলার ধরা হয়েছিল। কিন্তু সে বিষয়টি অতিরঞ্জিত করে প্রচার করছে।

শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত বলেন, আমরা চাই প্রশাসন এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

প্রক্টর অধ্যাপক ড. শাহাদৎ হোসেন আজাদ বলেন, প্রক্টরিয়াল বডিতে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে রোববার সকালে রেজুলেশন আকারে কর্তৃপক্ষকে দেয়া হবে।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/জামান/২৬/০২/২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

প্রতি বছর হিজরি বর্ষের শাবান মাসের ১৪ তারিখ দিবাগত রাতটি ‘শবে বরাত’ হিসেবে পালিত হয়। এবারও যথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদায় গতকাল রবিবার দিবাগত রাতে সারাদেশে পবিত্র ‘শবে বরাত’ পালিত হয়েছে। এদিন রাতে বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা মহান আল্লাহর রহমত ও নৈকট্য লাভের আশায় নফল নামাজ আদায়, কোরআন তিলাওয়াত, জিকির, ওয়াজ ও মিলাদ মাহফিলসহ নানা ইবাদত-বন্দেগির মধ্য দিয়ে রাতটি অতিবাহিত করেছেন।

সৌভাগ্যের এ রজনীতে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে নারী-পুরুষ-শিশু-বৃদ্ধসহ সর্বস্তরের মুসলমানরা মহান সৃষ্টিকর্তা আল্লাহতায়ালার সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য ইবাদত-বন্দেগিতে মশগুল ছিলেন। কেউ কেউ ইবাদতে মশগুল থেকেছেন ফজরের নামাজ পর্যন্ত। এ উপলক্ষে অনেকে নফল রোজাও রেখেছেন।

মহিমান্বিত এ রজনীতে মুসলিম উম্মাহর সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশের মুসলমানরাও বিশেষ মোনাজাত ও দোয়ায় শামিল ছিলেন।এদিন রাতে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে মিলাদ ও বিশেষ মোনাজাত হয়েছে।

এ ছাড়া গতকাল রাতে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানমালার মধ্যে ছিল–ওয়াজ মাহফিল, কোরআন তিলাওয়াত, মিলাদ মাহফিল, হামদ, নাত, নফল নামাজ, তাহাজ্জুদের নামাজ ও আখেরি মোনাজাত।

পবিত্র এ রাতে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের এবাদত বন্দেগির জন্য জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ দেশের সব মসজিদ সারা রাত খোলা রাখা হয়েছে।

এদিকে পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।

এ ছাড়া পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে আজ সোমবার সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, শবে বরাত সম্পর্কে হাদিসে বলা হয়েছে- নবী করিম (সা.) বলেছেন, ‘আল্লাহতায়ালা অর্ধশাবানের রাতে (শবে বরাত) মাখলুকাতের দিকে রহমতের দৃষ্টি দেন এবং মুশরিক ও বিদ্বেষ পোষণকারী ছাড়া আর সবাইকে ক্ষমা করে দেন।’ যে রাতে বান্দাকে তার প্রতিপালক গোনাহ থেকে মুক্তি দিয়ে ক্ষমা করে দেন।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/জামান/২৬/০২/২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর। তবে রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।
গতকাল রবিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ শাহানাজ সুলতানা জানিয়েছেন, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

তিনি বলেন, আজ সোমবার অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা ১-২ ডিগ্রি সে. হ্রাস পেতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

আগামীকাল মঙ্গলবার অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

তার পরের দিন বুধবার আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। সারাদেশে রাত ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

এ ছাড়া বর্ধিত পাঁচ দিনে আবহাওয়ার সামান্য পরিবর্তন হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/জামান/২৬/০২/২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

এক নারী চিকিৎসকের শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়েছেন সাবেক স্বামী। এতে ওই চিকিৎসকের ৮০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।
ঘটনার শিকার নারী চিকিৎসকের নাম লতা আক্তার (২৭)। তাকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।গতকাল রোববার দুপুরে নরসিংদীর রায়পুরায় মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটে।

লতার খালু মো: ফরহাদ হোসেন বলেন, শাহাবুদ্দিন মেডিক্যাল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন লতা। তিনি নারায়ণগঞ্জে একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

ঘটনার ব্যাপারে তিনি বলেন, দুই বছর আগে মো: খলিলুর রহমান নামে এক ছেলেকে প্রেম করে বিয়ে করেন লতা। বিয়ের কিছুদিন পর জানতে পারেন ওই ছেলে একজন গাড়িচালক। প্রতারণা করে বিয়ে করায় তাদের তালাক হয়। এর জেরে বাসায় এসে লতার গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে পালিয়ে যান খলিলুর। পরে লতার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় একটি হাসপাতালে এবং অবস্থার অবনতি হলে ঢাকায় বার্ন ইনস্টিটিউটে আনা হয়।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক চিকিৎসক ডা. মো: তরিকুল ইসলাম জানান, ওই নারী চিকিৎসকের শরীরের ৮০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো: বাচ্চু মিয়া জানান, নরসিংদীর রায়পুরা থেকে এক নারী চিকিৎসক দগ্ধ হয়ে এসেছেন। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/জামান/২৬/০২/২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

ঘুমের ওষুধ খেয়ে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তির পর আদিবা নামের এক এসএসসি পরীক্ষার্থীর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে। গতকাল রবিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) তার মৃত্যু হয়।

গত ১৫ ফেব্রুয়ারি আদিবাকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগে চান্দগাঁও থানায় মামলা হয়। পুলিশ গত ১৭ ফেব্রুয়ারি এ ঘটনায় হামিদ মোস্তাফা নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে।

হামিদ মারা যাওয়া এসএসসি পরীক্ষার্থী আদিবার কোচিংয়ের শিক্ষক বলে জানিয়েছে পুলিশ।
এ প্রসঙ্গে চান্দগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো. ছবেদ আলী বলেন, ‘ঘুমের ওষুধ খাওয়ার পর গত ১৫ ফেব্রুয়ারি আদিবাকে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয়। আদিবা চট্টগ্রাম নগরের বহদ্দারহাট ফরিদারপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

পুলিশ জানায়, আদিবা অন্তঃসত্ত্বা ছিল। কোচিংয়ের শিক্ষক হামিদ মোস্তাফার সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল তার।

আদিবার মামা মো. ইকবাল সাংবাদিকদের বলেন, ‘ঘুমের ওষুধ খাওয়ার পর আদিবার বিষয়টি আমরা জানতে পারি। আমরা এ ঘটনায় সুষ্ঠু বিচার চাই।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/জামান/২৬/০২/২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

জিএসটি গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের সময়সীমা আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত একদিন বাড়ানো হয়েছে।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) জিএসটি গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ভর্তি পরীক্ষার কোর কমিটির বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।গত ২২ ফেব্রুয়ারি অনলাইনে অনুষ্ঠিত তৃতীয় সভায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোর কমিটি।

আগের ঘোষণা অনুযায়ী, গত ১২ ফেব্রুয়ারি দুপুর ১২টা ১ মিনিট থেকে ২৬ ফেব্রুয়ারি রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারতেন। তবে ভর্তির আবেদন চলাকালীন কারিগরি ত্রুটির কারণে একদিন আবেদন কার্যক্রম বিঘ্নিত হয়। এ বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে কোর কমিটির সভায় ভর্তিচ্ছুদের সুবিধার্থে আবেদনের সময়সীমা আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত একদিন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়।

উল্লেখ্য, আগামী ২৭ এপ্রিল শনিবার (এ ইউনিট-বিজ্ঞান), ৩ মে শুক্রবার (বি ইউনিট-মানবিক) এবং ১০ মে শুক্রবার (সি ইউনিট-বাণিজ্য) ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা দুপুর ১২টা থেকে ১টা এবং অন্য দুই ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/জামান/২৬/০২/২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ২৯ হাজার ৪৮৯ জনে দাঁড়িয়েছে। এ সময়ে আরও ৪৬ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০ লাখ ৪৮ হাজার ২৩২ জনে।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ২৮ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ২০ লাখ ১৫ হাজার ২৮৭ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষা করা হয় ৫৩৯ নমুনা। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ৮ দশমিক ৫৩ শতাংশ। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ০৮ শতাংশ।

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম ৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। ২০২১ সালের ৫ ও ১০ আগস্ট দু’দিন করোনায় সর্বাধিক ২৬৪ জন করে মারা যান।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/এএইচএম/২৬/০২/২০২৪

magnifiermenu linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram