website page counter ‘জয় হিন্দ’ স্লোগান দিয়ে সমালোচনার মুখে রাবি উপাচার্য - শিক্ষাবার্তা ডট কম

বুধবার, ২৩শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং, ৮ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘জয় হিন্দ’ স্লোগান দিয়ে সমালোচনার মুখে রাবি উপাচার্য

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) অনুষ্ঠিত একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলনে ‘জয় হিন্দ’ স্লোগান দেয়ায় ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন রাবি উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান। ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত একাধিক সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। এ নিয়ে শিক্ষকদের সমালোচনা মুখে পড়েছেন উপাচার্য এম আব্দুস সোবহান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা মনে করছেন, স্বাধীন দেশে আরেকটি দেশের স্লোগান দেয়া নেতিবাচক। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে ছোট করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক জ্যেষ্ঠ অধ্যাপক একে রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল বলে উল্লেখ করেছেন। উপাচার্যের এই বক্তব্যের পর ক্যাম্পাসজুড়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন সমালোচনা করেছে।

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগ ও জন-ইতিহাস চর্চা কেন্দ্রের উদ্যোগে গত ২৬ সেপ্টেম্বর তিন দিনব্যাপী ‘কালচার, পিস অ্যান্ড এডুকেশন; ফ্রম দ্যা পারস্পেকটিভ অভ পিপলস্ হিস্ট্রি’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপাচার্য আব্দুস সোবহান সভাপতি হিসেবে বক্তব্য দেন। তিনি জয় বাংলা বলার পর ‘জয় হিন্দ’ বলে তার বক্তব্য শেষ করেন। এরপরই সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি।

রাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম ফারুকী বলেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি উপাচার্য অন্য একটি দেশের স্লোগান দিতে পারেন না। কোন প্রেক্ষাপটে তিনি এ স্লোগান দিলেন তা আমার বোধগম্য নয়।

ইসলামী জাতীয়তাবাদ ও মূলবোধে বিশ্বাসী শিক্ষক গ্রুপের আহ্বায়ক অধ্যাপক এনামুল হক বলেন, ভারতীয় হাইকমিশনারকে খুশি করতে উপাচার্যের অন্য একটি দেশের স্লোগান দেয়া অনাকাঙ্ক্ষিত। এর মাধ্যমে তিনি উপাচার্যের পদে থাকার নৈতিকতা হারিয়েছেন।

বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আহ্বায়ক মাসুদ মোন্নাফ বলেন, জয় হিন্দ বলে বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশকে খাটো করেছেন উপাচার্য। এ নিয়ে তাদের প্রতিবাদ কর্মসূচি করা হবে বলেও জানান তিনি।

রাবি শাখা প্রগতিশীল ছাত্র জোটের সাবেক আহ্বায়ক রঞ্জু হাসান বলেন, এ ধরনের স্লোগান দেয়ার মাধ্যমে উপাচার্য তার পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন। তার এই বক্তব্য ও সাম্প্রতিক সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘটে যাওয়া বিভিন্ন ঘটনার প্রতিবাদে আমরা প্রতিবাদী সমাবেশের ডাক দিয়েছি।

রাবি ছাত্রদলের যুগ্ম-সম্পাদক সানিন চৌধুরী বলেন, একটি স্বাধীন সার্বভৌমত্ব রাষ্ট্রের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অন্য একটি দেশের স্লোগান দেওয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে খাটো করেছেন। আমরা অনতিবিলম্বে তার অপসারণের দাবি করছি।

তবে রাবি ছাত্রলীগর সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু বলেন, উপাচার্য স্যার অনেক বিজ্ঞ মানুষ। তিনি হয়তো কোনো এক প্রেক্ষাপটে জয় হিন্দ স্লোগান দিয়েছেন। এতে বঙ্গবন্ধুকে খাটো করা হয়নি।

এ বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। পরে তার দপ্তরে গেলে সেখানকার সহকারী রেজিস্ট্রার নারায়ণ চন্দ্র বর্মণ উপাচার্য মিটিংয়ে আছেন বলে জানান।

এই বিভাগের আরও খবরঃ