অধিকার ও সত্যের পক্ষে

উচ্চশিক্ষায় যেতে চাইলে আইসল্যান্ড

 নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

সমৃদ্ধ সামাজিক ও অর্থনীতিক অবকাঠামোর পাশাপাশি আইসল্যান্ডের শিক্ষাব্যবস্থাও বেশ উন্নত। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে আইসল্যান্ডে পড়তে যাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পাচ্ছে। এর প্রধান কারণ হচ্ছে, আইসল্যান্ডের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে রয়েছে বিনা বেতনে বা স্বল্প বেতনে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের সুযোগ।

আইসল্যান্ডে আপনি ব্যাচেলর, মাস্টার ও পিএইচডি ডিগ্রি নিতে পারবেন। এছাড়াও বিভিন্ন শর্ট কোর্স ও ডিপ্লোমা করার সুযোগও রয়েছে। ব্যাচেলর ডিগ্রির মেয়াদ সাধারণত তিন থেকে চার বছর, মাস্টার ডিগ্রির মেয়াদ এক থেকে দুই বছর এবং ডক্টরাল ডিগ্রি তিন বছর মেয়াদি হয়ে থাকে।

আইসল্যান্ডের উল্লেখযোগ্য কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয় হলো, বিফরোস্ট ইউনিভার্সিটি, দি অ্যাগ্রিকালচার ইউনিভার্সিটি অব আইসল্যান্ড, একাডেমী অব দ্যা আর্ট, ইউনিভার্সিটি অব আইসল্যান্ড, অ্যাকুরেরি ইউনিভার্সিটি।

যে সব বিষয় পড়ানো হয়

অ্যাকাউন্টিং, অডিটিং, বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন, ফিন্যান্স, এইচআরএম, মার্কেটিং, ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস, প্রোজেক্ট ম্যানেজমেন্ট, সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট, স্ট্রেটেজিক ম্যানেজমেন্ট, ল, পাবলিক হেলথ, পাবলিক ইন্টারন্যাশনাল ল, ইঞ্জিনিয়ারিং, ফার্মাসি, ফিজিক্স, নিউট্রিসন এন্ড ফুড সায়েন্স, ম্যাথম্যাটিকস, বায়োলজি, ইকোনমিক্স, জিওগ্রাফি পাবলিক অ্যাডমিনিস্ট্রেশন, ন্যাচারাল হিস্ট্রোরি, পলিটিক্স, প্রোপার্টি ম্যানেজমেন্ট, ওয়েব ডিজাইন, নার্সিং, মেডিসিন সায়েন্স, ইন্টারন্যাশনাল ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালটি, স্পোর্টস সায়েন্স, মাল্টিমিডিয়া ফ্যাশন, ফিল্ম, ফাইন আর্ট, অডিও ইঞ্জিনিয়ারিং সহ আরো বিভিন্ন বিষয়ে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের সুযোগ রয়েছে।

শিক্ষাব্যবস্থা

আইসল্যান্ডে মোট ৭টি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে ৩টি প্রাইভেট এবং বাকি ৪টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে মোট শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ১৮০০০ এর মধ্যে ৫% শিক্ষার্থী বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আগত। আইসল্যান্ডের বিশ্ববিদ্যালয়ে সাধারণত বছরে ২ বার ভর্তির জন্য আবেদন করা যায়। অটাম ও স্প্রিং এ দুই সেমিস্টারে শিক্ষার্থী ভর্তি করানো হয়। এখানের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আইসল্যান্ডীয় ও ইংরেজি উভয় মাধ্যমে পড়ানো হয়। আপনি ইংরেজি বা আইসল্যান্ডীয় যে ভাষায় পড়াশোনা করুন না কেন, উভয় ক্ষেত্রেই ভাষা দক্ষতার প্রমাণপত্র দেখাতে হবে।

আইসল্যান্ডের মানুষের ভাষা আইসল্যান্ডীয়। তবে বেশিরভাগ মানুষই ইংরেজি ভাষায় কথা বলতে পারে। কিন্তু পড়াশোনার পাশাপাশি কাজ করতে চাইলে আইসল্যান্ডীয় ভাষা শিখে নিলে আপনার জন্য ভালো হবে। ইউনিভার্সিটি অব আইসল্যান্ড অনলাইনে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে আইসল্যান্ডীয় ভাষা শিক্ষা কোর্স পরিচালনা করে থাকে, আপনি চাইলে সেখান থেকেও আইসল্যান্ডীয় ভাষা শিখে নিতে পারেন।

পড়াশোনা খরচ কম

এখানের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পড়তে কোনো টিউশন ফি দিতে হয় না। বছরে শুধু একবার ছোট রেজিস্ট্রেশন ফি লাগে। কিন্তু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এবং কিছু কোর্সের ক্ষেত্রে টিউশন ফি দিতে হয়, তবে তা ইউরোপের অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক কম।

স্কলারশিপের সুবিধা

আইসল্যান্ড শিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রতি বছর বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য বিভিন্ন ধরনের স্কলারশিপ অফার করে থাকে। স্কলারশিপগুলো শিক্ষার্থীদের যোগ্যতার ভিত্তিতে প্রদান করা হয়। ভর্তি ও স্কলারশিপ সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্যের জন্য সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে পারেন।

কাজের সুযোগ

ইউরোপের অন্যান্য দেশের মতো এদেশেও শিক্ষার্থীরা সপ্তাহে ২০ ঘণ্টা খন্ডকালীন কাজ করতে পারে। তাছাড়া ছুটির সময় ফুলটাইম কাজ করা যায়।

একই ধরনের আরও সংবাদ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.