৪ নভেম্বর ইসলামী আন্দোলনের জাতীয় শীরাত সম্মেলন

আগামী ৩ ও ৪ নভেম্বর ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের উদ্যোগে দুই দিনব্যাপী জাতীয় সীরাতুন্নবী (সা.) মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।

রাজধানীর গুলিস্তানে কাজী বশির মিলনায়তন চত্বরে এই মাহফিল হবে। এরমধ্যে ৪ নভেম্বর জাতীয় সীরাত সম্মেলন হবে।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর একটি রেস্টুরেন্টে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এ কথা জানান ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সহকারী মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি মাওলানা মুহাম্মাদ ইমতিয়াজ আলম।

তিনি বলেন, মাসব্যাপী সীরাত প্রোগ্রামের অংশ হিসেবে আমরা সহস্রাধিক প্রতিযোগীর সমন্বয়ে প্রতিযোগিতা, রাজধানীতে সপ্তাহব্যাপী সীরাত ক্যাম্পেইন, বিশিষ্টজনের মাঝে সীরাত গ্রন্থ বিতরণ, মিডিয়া ব্যক্তিত্বদের নিয়ে মতবিনিময়, বিশিষ্ট নাগরিকদের নিয়ে সীরাত চর্চার গুরুত্ব নিয়ে আলোচনা, ২ দিন ব্যাপী সীরাত মাহফিলসহ বহুমুখী নানান কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়েছে। এরপর ৪ নভেম্বর জাতীয় সীরাত সম্মেলনে প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণসহ বিশ্বজয়ী হাফেজে কুরআন এবং তাদের অভিভাবকের সংবর্ধিত করা হবে।

এসম্মেলনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর চরমোনাই পীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীমসহ দেশ-বিদেশের খ্যাতিমান সীরাত গবেষক ও স্কলাররা উপস্থিত হয়ে সীরাত বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা পেশ করবেন।

এক প্রশ্নের জবাবে মাওলানা মুহাম্মাদ ইমতিয়াজ বলেন, আমরা মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করি। নির্বাচনের প্রধান যে কটি অন্তরায় তার অন্যতম ইভিএম। ভোটকেন্দ্রে সাংবাদিক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ এবং দলীয় সরকার, দলীয় নির্বাচন কমিশন, দলীয় প্রশাসন অন্যতম বড় বাধা।

তিনি বলেন, দলীয় সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন হয়না। এজন্য নিরপেক্ষ সরকার ও নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন হতে হবে। কারণ গাইবান্ধা-৫ আসনের উপনির্বাচন প্রমাণ করেছে দলীয় সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়।

মাওলানা মুহাম্মাদ ইমতিয়াজ বলেন, আমরা বিএনপি বা আওয়ামী লীগ কারো সঙ্গে নেই। ইসলামী কল্যাণমূলক রাষ্ট্র গড়তে কাজ করছি। যারাই ইসলামী কল্যাণ রাষ্ট্র গড়তে কাজ করবে তাদের সঙ্গে আলোচনা করা যেতে পারে।

মতবিনিময়কালে আরও উপস্থিত ছিলেন- ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় প্রচার ও দাওয়াহ সম্পাদক মাওলানা আহমাদ আব্দুল কাইয়ুম, কেন্দ্রীয় মিডিয়া উপ-কমিটির সহ সমন্বয়ক শহিদুল ইসলাম কবির, মহানগর দক্ষিণের সেক্রেটারি আব্দুল আউয়াল মজুমদার, কেন্দ্রীয় মিডিয়া উপ-কমিটির সদস্য ইলিয়াস হাসান, মহানগর দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা কে এম শরীয়াতুল্লাহ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি আব্দুল আহাদ, প্রচার ও দাওয়াহ সম্পাদক মুফতি শেখ মুহাম্মাদ সাইফুল ইসলাম, সহ-প্রচার ও দাওয়াহ সম্পাদক মাওলানা জিয়াউল আশরাফ, অর্থ সম্পাদক নজরুল ইসলাম খোকন, এম এম শোয়াইব, ছাত্রনেতা আহমেদ সাব্বির, ইউসুফ পিয়াস, মাহমুদুল হাসান মাহমুদ প্রমুখ