৩৪ ভিসির পদত্যাগ দেখতে চাইঃ ডঃ জাফর ইকবাল

অনলাইন ডেস্ক।।

শাবির অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক ও জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল বলেছেন, শাবি ভিসি পদ ছাড়লে ৩৪ ভিসি একযোগে পদত্যগ করবেন বলেছেন। আমি দেখতে চাই তারা পদত্যাগ করেছেন৷

বুধবার (২৬ জানুয়ারি) ভোরে শাবিতে পৌঁছে সেখানে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনে সংহতি প্রকাশ করেন তিনি।

ড. জাফর ইকবালের উপস্থিতিতে আন্দোলনের অনশনরত শিক্ষার্থীরা অনশন ভাঙতে রাজি হন। সকাল ৮টায় হাসপাতালে থাকা শিক্ষার্থীরা সহ উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অনশনরত শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙাবেন তিনি। আন্দোলনের ১৩ দিন ও অনশনের ৮ দিনের মাথায় সিলেটে এলেন অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল।

বুধবার (২৬ জানুয়ারি) ভোর ৪টার দিকে শাবি ক্যাম্পাসে এসে তিনি উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থানরত অনশনকারীদের সাথে দেখা করেন জাফর ইকবাল। এসময় তিনি ও তার স্ত্রী অধ্যাপক ড. ইয়াসমিন হক আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের কথা শুনেন।আন্দোলনকারীদের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে তিনি অনশনরতদের অনশন ভাঙতে অনুরোধ করেন।

কিছুক্ষণ পর অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল এক প্রেস ব্রিফিং করেন। আন্দোলনকারীদের উদ্দেশে সাবেক এই অধ্যাপক বলেন, তোমরা টের পাচ্ছো না তোমরা কী করেছো। এটাই আমার খুব দুঃখ। বাংলাদেশ ৩৪টা ইউনিভার্সিটির ভাইস-চ্যান্সেলর বলেছেন যে, এই ইউনিভার্সিটির ভিসি যদি পদত্যাগ করেন তাহলে তারা সবাই পদত্যাগ করবেন। এটা দেখার খুবই শখ আমার।

জাফর ইকবাল বলেন, আমাদের এরকম ভাইস-চ্যান্সেলররা আছেন যাদের আদর্শ এত বেশি যে উনারা অন্যর সহমর্মিতায় নিজেরা পদত্যাগ করবেন। কিন্তু আমার মনে হয়না আমার এ আশা সহজে মিটবে। তোমরা বড়ধরনের নাড়া দিয়েছো। এখন কাউকে কোথাও ভিসি পদে বসানো হলে  তার যোগ্যতা নিয়ে সবাই চুলচেড়া বিশ্লেষণ করবে।

তিনি বলেন, আমি অনেক কিছু জানি। কিন্তু পাবলিকলি বলতে চাই না। কারণ নিজেদের দুর্বলতার কথা বলতে ভালো লাগে না। তোমাদেরকে শুধু এটুকু বলতে চাই,  তোমরা যেটা করেছো তার তুলনা নেই। এই আন্দোলনে  বাংলাদেশের প্রত্যেকটা যুবক ছেলেমেয়ে তোমাদের সাথে আছে।