১ নো বলেই পাকিস্তানের হার

স্পোর্টস ডেস্ক।।

তীরে গিয়ে তরী ডুবল পাকিস্তানের। ভারতের মতো চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দলের বিপক্ষে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে লড়াই করেও নিজেদের ভুলে ম্যাচ হারল বাবর আজমের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান।

পাকিস্তানকে ১৫৯ রানে আটকে রেখে জয়ের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমেই বিপাকে পড়ে যায় ভারত। ৩১ রানে লোকেশ রাহুল, রোহিত শর্মা, সুরাইয়া কুমার যাদব ও অক্ষর প্যাটেলের উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে পড়ে ভারত।

সেই অবস্থা থেকে দলকে খেলায় ফেরান বিরাট কোহলি। তাকে সঙ্গ দিয়েছেন অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া।

প্রথম ১০ ওভারে ৪৫ রানে ৪ উইকেট হারানো ভারত পরের ৫ ওভারে করে ৬৫ রান। শেষদিকে জয়ের জন্য ভারতের প্রয়োজন ছিল ৬০ রান।

কোহলি এবং পান্ডিয়া ক্যালকুলেটিভ ক্রিকেট খেলে ম্যাচটি জয়ের দুয়ারে নিয়ে যান।

১৮তম ওভারে শাহিন শাহ খরচ করেন ১৭ রান। শেষ ১৮ বলে ভারতের প্রয়োজন ছিল ৪৮ রান। পরের ওভারে হারিস রউফ খরচ করেন ১৫ রান।

শেষ ওভারে ভারতের দরকার ছিল ১৬ রান। ১২তম ওভারে ২০ রান খরচ করা সেই মোহাম্মদ নওয়াজের হাতেই শেষ ওভারে ভরসা রাখেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম।

শেষ ওভারের প্রথম বলেই হার্দিক পান্ডিয়াকে ক্যাচ তুলতে বাধ্য করেন মোহাম্মদ নওয়াজ। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমে প্রথম বলে সিঙ্গেল নিয়ে প্রান্ত বদল করেন দীনেশ কার্তিক।  তৃতীয় বলে স্টাইক পেয়ে বিরাট কোহলি ডাবল রান নেন। পরের ৩ বলে ভারতের প্রয়োজন ছিল ১৩ রান।

চতুর্থ বলে ছক্কা হাঁকান কোহলি। সেই বলটি কোমরের উপরে হওয়ায় হাই নো কল করেন আম্পায়ার। ফ্রি হিটের বলে ওয়াইড দেন নওয়াজ। পরের বলে দৌড়ে ৩ রান নেন কোহলি-কার্তিক। পঞ্চম বলটি ডাউন দ্য উইকেটে খেলতে গিয়ে আউট হন দীনেশ কার্তিক।

শেষ বলে ভারতের প্রয়োজন ছিল ২ রান। শেষ বল ফের ওয়াইড দেন নওয়াজ। ১ বলে ভারতের প্রয়োজন পড়ে ১ রান। শেষ বলে সিঙ্গেল রান নিয়ে দলের ৪ উইকেটের জয় নিশ্চিত করেন রবি চন্দ্রন অশ্বিন।