১৪ প্রতিষ্ঠানের নিয়োগ পরীক্ষা শুক্রবার, বিপাকে প্রার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

একই দিনে একাধিক প্রতিষ্ঠান চাকরির পরীক্ষার সময় দেওয়ায় বিপাকে পড়েছেন চাকরিপ্রার্থীরা। আগামী শুক্রবার (২১ অক্টোবর) সারা দেশে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, ইনস্টিটিউট ও অধিদপ্তরসহ ১৪টি প্রতিষ্ঠানে চাকরিপ্রত্যাশীদের পরীক্ষায় বসতে হচ্ছে। এসব প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন পদে আবেদনকারীর সংখ্যা নয় লাখ ৬৮ হাজার ৮৯৯ জন।

শুক্রবার একাধিক পরীক্ষা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চাকরির গ্রুপগুলোতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেক চাকরিপ্রার্থীরা। অনেকেই দিনটিকে ‘পরীক্ষা দিবস’ হিসেবে অভিহিত করেছেন। ভোগান্তির কথা বিবেচনা করে প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে সমন্বয় ও পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তনের দাবি জানিয়েছেন চাকরিপ্রার্থীরা।

শুক্রবার সকাল, দুপুর ও বিকেলে এসব পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়া কথা। একই দিনে ১৪টি প্রতিষ্ঠানের চাকরির পরীক্ষা হওয়ায় কোনো কোনো প্রার্থীর ৩ থেকে ৪টি পরীক্ষা পড়েছে ওই দিন। কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের পরীক্ষা পড়েছে একই সময়ে। এর মধ্যে সমাজসেবার অধিদপ্তরের ইউনিয়ন সমাজকর্মী ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরে অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক পদের পরীক্ষা পড়েছে একই সময়ে।

সবচেয়ে বেশি পরীক্ষার্থীর সংখ্যা সমাজসেবার অধিদপ্তরের ইউনিয়ন সমাজকর্মী পদে। সারা দেশে ৬৪ জেলায় একযোগে শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এ পদে আবেদন করেছেন ছয় লাখ ৬২ হাজার ২৭০ জন। শূন্য পদের হিসেবে প্রতিটি পদের জন্য লড়বেন এক হাজার ৪৩০ জন।

এর পরই রয়েছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরে অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক পদে চাকরিপ্রত্যাশীদের সংখ্যা। এ পদে আবেদন করেছেন দুই লাখ ৫৫ হাজার ২৯২ জন। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এ পদের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

প্রধান প্রশাসনিক কর্মকর্তার কার্যালয়ে ৩টি পদে ৩২ হাজার ৩৮৬ জন, বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা পদে এক হাজার ২৯০ জন, গণযোগাযোগ অধিদপ্তরে ঊর্ধ্বতন কণ্ঠশিল্পী পদে ১০০ জন, বাংলাদেশ পাট গবেষণা ইনস্টিটিউটের ৩টি পদে ১২৬ জন, বাংলাদেশ ডেটা সেন্টার কোম্পানি লিমিটেডের ২টি পদে ৬৪১ জন, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসে এক হাজার ৩৭০ জন, হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয়ের ১টি পদে তিন হাজার ৮৭৭ জন, প্রিমিয়ার ব্যাংকের ৩টি পদে ছয় হাজার ৫৩০ জন, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষে ২৫৮ জন, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ইনস্টিটিউটের ২টি পদে মৌখিক পরীক্ষায় ২২ জন ও বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষে চার হাজার ৭৩৭ জন।

এছাড়া বাংলাদেশ রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষের (বেপজা) তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির পদে পরীক্ষা হবে শুক্রবার। তবে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা জানা যায়নি।

গত বছরও একই দিনে ১৫ থেকে ১৬টি চাকরির পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল। সে সময় প্রতিষ্ঠানগুলো বলেছিল, করোনাভাইরাসের কারণে বিধিনিষেধ থাকায় নিয়োগ পরীক্ষা বন্ধ ছিল। বিধি নিষেধ উঠে যাওয়ায় প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকা পরীক্ষা নেওয়া শুরু করেছে। সে কারণেই এক সঙ্গে পরীক্ষার সূচি পড়েছে।