১দিনেই ১১ লাখ ৩০ হাজারের বেশি রেকর্ড সংখ্যক করোনা রোগী শনাক্ত আমেরিকায়

অনলাইন ডেস্ক।।

 মারাত্মক সংক্রামক ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের প্রভাবে যুক্তরাষ্ট্রে এক দিনেই ১১ লাখ ৩০ হাজারের বেশি মানুষের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

সোমবার ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের হিসেবে এই তথ্য দেখা গেছে। এটা মহামারি শুরুর পর যেকোনও দেশেই দৈনিক শনাক্তের ক্ষেত্রে বিশ্ব রেকর্ড।

এর আগের রেকর্ডটি ছিল গত ৩ জানুয়ারির। সেদিন একদিনে যুক্তরাষ্ট্রে শনাক্ত হয় ১০ লাখ ৩০ হাজার করোনা রোগী। সোমবার বিপুল সংখ্যক রোগী শনাক্ত হওয়ার বড় কারণ সাপ্তাহিক ছুটির দিনে রিপোর্ট দেওয়া হয়নি। গত দুই সপ্তাহে গড় রোগী বৃদ্ধির পরিমাণ তিনগুণ বেড়েছে। গত সাত দিনে প্রতিদিন গড়ে সাত লাখ মানুষের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সব রাজ্য এখন পর্যন্ত সোমবারের শনাক্তের হিসাব প্রকাশ করেনি। ফলে চূড়ান্ত হিসেব আরও অনেক বেশি হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা শনাক্তের বিশ্ব রেকর্ডের দিনে দেশটিতে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যাও রেকর্ড গড়েছে। তিন সপ্তাহে হাসপাতালে রোগীর পরিমাণ তিনগুণ বেড়েছে।

রয়টার্সের হিসেবে, যুক্তরাষ্ট্রের হাসপাতালগুলোতে বর্তমানে করোনা রোগী রয়েছে এক লাখ ৩৫ হাজার ৫০০ জন। আগের রেকর্ডটি ছিল গত বছরের জানুয়ারিতে। ওই সময়ে দেশটিতে এক লাখ ৩২ হাজার ৫১ রোগী হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন।

ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট অপেক্ষাকৃত কম তীব্রতা অসুস্থতা তৈরি করে। তবে স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা সতর্ক করে বলেছেন, বিপুল সংখ্যক রোগী হাসপাতাল ব্যবস্থার ওপর চাপ ফেলতে পারে। ইতোমধ্যে বেশ কিছু হাসপাতালে রোগী বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কমেছে কর্মীর সংখ্যা।

সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন এলাকায় স্কুল খোলা রাখাও কঠিন হয়ে পড়েছে। আক্রান্ত হওয়ায় শিক্ষক ও স্কুল বাসের চালকরা কাজে যোগ দিতে পারছেন না, শিক্ষার্থীরাও অনুপস্থিত থাকছে। বিপুল সংখ্যক কর্মী কোভিডে আক্রান্ত হওয়ায় নিউ ইয়র্ক শহরে পাতাল রেলের তিনটি লাইন বন্ধ রাখা হয়েছে।

ফাইজারের সিইও সোমবার বলেছেন, ওমিক্রনকে সামাল দেওয়ার জন্য বিশেষভাবে একটি টিকা তৈরি করা প্রয়োজন বলে তিনি মনে করছেন। আগামী মার্চের মধ্যে তার কোম্পানিই হয়ত একটি টিকা আনতে পারবে।