১১০ বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দেবে রাশিয়া

নিউজ ডেস্ক।।

প্রতি বছরের মতো এ বছরও বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার সুযোগ দিতে আগামী ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে ১১০ জনকে বৃত্তি দেবে রাশিয়া। দেশটির বিভিন্ন উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা ব্যাচেলর অব মাস্টার্স ও পিএইচডি কোর্স করতে পারবেন।

বুধবার (১২ অক্টোবর) রাতে রাজধানীর ধানমন্ডিতে অবস্থিত রাশিয়ান হাউসে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। অক্টোবর মাসেই এই বিজ্ঞাপ্তি দেওয়া হবে বলেও জানানো হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে রাশিয়ান হাউস ঢাকার পরিচালক ম্যাক্সিম দোব্রোখোতভ বলেন, রাশিয়ান দূতাবাস ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে ৭০ জন বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে মাস্টার্স ও পিএইচডি কোর্সে উচ্চ শিক্ষায় বৃত্তি দিয়েছে। ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে রাশিয়ান সরকার বাংলাদেশ থেকে ১১০ জন শিক্ষার্থীকে মাস্টার্স ও পিএইচডি প্রোগ্রামে সুযোগ দেবে।

যা খুব শিঘ্রই চালু হবে। শিক্ষার্থীদের এডুকেশন ইন রাশিয়া ডটকম সাইটে গিয়ে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। অনলাইনে আবেদনের কপিসহ সকল প্রকার মার্কশিট, সনদপত্র ও পাসপোর্ট কপি রাশিয়ান হাউসের শিক্ষা বিভাগে জমা দিতে হবে।
সংবাদ সম্মেলনে আরও বলা হয়, উচ্চ শিক্ষায় রুশ সরকারের দেওয়া এই বৃত্তিতে বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা উপকৃত হচ্ছেন। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র হওয়ার কারণে রাশিয়া থেকে পড়াশোনা করে আসা শিক্ষার্থীরা সেখানে উচ্চ বেতনে চাকরির সুযোগ পাচ্ছেন।

এছাড়াও রাশিয়ান হাউস থেকে রাশিয়ান ভাষা শিক্ষা কোর্স সম্পন্ন করে বিভিন্ন প্রকল্পে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হচ্ছে। রাশিয়ান ভাষার কোর্সটি তিন সেমিস্টারের আওতায় ৯ মাস মেয়াদি হয়ে থাকে। কোর্সটি সাধারণত জানুয়ারি, এপ্রিল ও অক্টোবরে শুরু হয়ে থাকে। বাংলাদেশে দিন দিন রাশিয়ান ভাষা শিক্ষায় আগ্রহ বাড়ছে বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রাশিয়ান হাউস ঢাকার পরিচালক ম্যাক্সিম দোব্রোখোতভ, রাশিয়ান হাউসের সাংস্কৃতিক বিভাগের প্রধান প্রশান্ত কুমার বর্মণ ও শিক্ষা বিভাগের প্রধান সৈয়দ বজলুল হাসান।