১০ ডিসেম্বর গণসমাবেশ: বিকল্প নিয়ে বৈঠক, বিএনপির পছন্দ আরামবাগ

নিউজ ডেস্ক।।

আগামী ১০ ডিসেম্বরের ঢাকা বিভাগীয় মহাসমাবেশের জন্য বিএনপি চাচ্ছে নয়াপল্টন। সরকার অনুমতি দিয়েছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। বিএনপি সেটা না মেনে এখনও পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে দেন দরবার করছে।

বিএনপি নেতারা জানিয়েছেন, মহাসমাবেশ করার জন্য নয়াপল্টনের বিকল্প হিসেবে আরামবাগ এলাকা বিএনপির প্রথম পছন্দ। রাজধানীর অন্য স্থানের ব্যাপারেও তারা ভাববেন বলে জানিয়েছেন।

কোনোভাবে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান বা তুরাগ নদীর পাড়ে বিএনপি ১০ ডিসেম্বরের মহাসমাবেশ করবে না বলে জানিয়েছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।

তিনি বলেন, ঢাকায় ১০ ডিসেম্বর গণসমাবেশের জন্য নয়াপল্টনের বিকল্প হিসেবে আমরা আরামবাগ সিএনজি পাম্পের সামনের সড়কে সমাবেশ করতে চাই। গতকাল এবং আজ সোমবার (৫ ডিসেম্বর) মৌখিকভাবে পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

বিএনপির একাধিক সূত্র জানায়, সংঘাত ও চলমান ধরপাকড় এড়ানোসহ সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় রাজনৈতিক কৌশলের অংশ হিসেবে কিছুটা নমনীয় অবস্থান গ্রহণ করেছে বিএনপি। সে কারণে দলের পক্ষ থেকে বিকল্প এই প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

বিএনপির পক্ষ থেকে মৌখিকভাবে আরামবাগ সড়কের ওপর বিকল্প ভেন্যুর কথা বলা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের মতিঝিল বিভাগের ডিসি হায়াতুল ইসলাম খান।

তিনি বলেন, মৌখিকভাবে বিএনপি নেতারা নয়াপল্টন না দিলে আরামবাগে মহাসমাবেশ করার অনুমতি চেয়েছেন। তবে সেটিও সড়কের ওপর। তাই জনভোগান্তি ও নিরাপত্তার বিষয়ে চিন্তা করতে হবে। পুরো বিষয় নিয়েই যাচাই-বাছাই চলছে। বিএনপি নেতাদের সঙ্গে পুলিশ যোগাযোগ রক্ষা করছে।

পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, নিরাপত্তা, যানজট, ভোগান্তিসহ সার্বিক বিষয় বিবেচনা করেই বিএনপিকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। সার্বিক দিক বিবেচনা করে শেষ পর্যন্ত বিএনপি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে তাদের কর্মসূচি পালন করবে বলে আশা করছি।