সেই শিক্ষককে কোর্স ও পরীক্ষা কমিটি থেকে অব্যাহতি

শিক্ষাবার্তা ডেস্কঃ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. মুর্শেদ রায়হানকে অবশেষে সংশ্লিষ্ট কোর্স এবং পরীক্ষা কমিটির সভাপতির পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মিডটার্ম পরীক্ষায় ইচ্ছাকৃত ভাবে নম্বর কম দেয়ার অভিযোগ ছিল।

শনিবার (২১ জানুয়ারি) মুঠোফোনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিভাগটির বিভাগীয় প্রধান ড. মুহাম্মদ সোহরাব উদ্দীন।

তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে আমাদের যেভাবে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে আমরা সেই অনুযায়ী বিভাগের শিক্ষকদের নিয়ে অ্যাকাডেমিক মিটিং ডেকে সেই স্যারকে সংশ্লিষ্ট কোর্স এবং পরীক্ষা কমিটির সভাপতির পদ থেকে অব্যাহতি দিয়েছি এবং নতুন একজনকে সেই জায়গায় দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। বিষয়টি আমরা খুব গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি। আশা করি ছাত্রদের এই বিষয়টা এখন দ্রুতই সমাধান হয়ে যাবে।

মো. মুর্শেদ রায়হানের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে যেই ১০ শিক্ষার্থী পরবর্তীতে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেনি তাদের পরীক্ষার ব্যাপারে কি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, যতজন পরীক্ষা দিতে পারেনি আমরা তাদের সাথে কথা বলে রবিবারে নতুন করে আবার একটা টাইম দিয়েছি যাতে তাদের সমস্যাটি দ্রুত সমাধান হয়ে যায়। যেহেতু ফেব্রুয়ারিতে অনেকগুলো চাকরির সার্কুলার আছে তারা যেনো সেই চাকরির সার্কুলারগুলো ধরতে পারে আমাদের সেই চেষ্টা থাকবে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক মো. মুর্শেদ রায়হান বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছু জানি না। এখনো আমাকে কিছু জানানো হয়নি।

উল্লেখ্য, গত ২৩ অক্টোবর প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ৮ম সেমিস্টারের ‘ট্যুরিজম অ্যান্ড হেরিটেজ ম্যানেজমেন্ট’ নামক একটি কোর্সের বিফোর ফাইনাল পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হলে মো. মুর্শেদ রায়হানের বিরুদ্ধে ইচ্ছাকৃতভাবে নম্বর কম দেওয়ার অভিযোগ করেন ব্যাচের শিক্ষার্থীরা। পরে ফলাফল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তা নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/এএইচএম/০১/২২/২৩