সরকারি হাইস্কুলে ভর্তির লটারি আজ

প্রকাশিত: ৫:৩১ পূর্বাহ্ণ, সোম, ১১ জানুয়ারি ২১

নিজস্ব প্রতিনিধি।।

সারাদেশের সব সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ২০২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি লটারি আজ সোমবার অনুষ্ঠিত হবে। কেন্দ্রীয়ভাবে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে বিকেল সাড়ে তিনটায় এ লটারি অনুষ্ঠিত হবে। অনলাইনে টেলিটকের বিশেষ সফটওয়্যারে এ লটারি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে। শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এ লটারি কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন।

সারাদেশে ৬৮৩টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় থাকলেও সব বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণি নেই। এসব বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণি থেকে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়। এছাড়া সব বিদ্যালয় এখনো অনলাইন ভর্তি প্রক্রিয়ায় আসতে পারেনি। এ কারণ এবছর ৩৯০টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অনলাইন লটারি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ছাত্রছাত্রী ভর্তি করা হচ্ছে।

এ স্কুলগুলোর নিয়ন্ত্রনকারী কর্তৃপক্ষ ‘মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) সহকারি পরিচালক (মাধ্যমিক-১) মো. আমিনুল ইসলাম টুকু রোববার জানান, ৩৯০টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বিভিন্ন শ্রেণিকে মোট শূন্য আসন আছে ৭৭ হাজার ১৪০টি। আর এসব আসনে ভর্তির জন্য এবার অনলাইনে আবেদন জমা পড়েছে ৫ লাখ ৭৪ হাজার ৯২৯টি।

তিনি জানান, লটারির ফল সোমবারই সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীদের মুঠোফোনে টেলিটকের এসএসএম এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। এছাড়া লটারিতে বিজয়ীদের তালিকা সংশ্নিষ্ট স্কুলগুলোতে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

দুই দফায় গত ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত এবার ভর্তির আবেদন টেলিটকের নির্ধারিত সফটওয়্যারের মাধ্যমে নেওয়া হয়। প্রথম দফায় গত ১৫ থেকে ২৭ ডিসেম্বর ডিসেম্বর পর্যন্ত ভর্তি আবেদন নেওয়া হয়েছিল। ৩০ ডিসেম্বর ভর্তি লটারির নির্ধারিত দিন ছিল। তবে নির্ধারিত শ্রেণিতে ভর্তির নির্ধারিত বয়সের চেয়ে কয়েকদিন কম হওয়ার কারণেও বিপুল সংখ্যক ভর্তিচ্ছু আবেদন করতে পারেনি।

এরপর মুন্সিগঞ্জের এক শিক্ষার্থীর বাবা মিজানুর রহমানের করা রীট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট গত ২৯ ডিসেম্বর ভর্তি আবেদনের সময় আরও এক সপ্তাহ বাড়িয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন। একইসঙ্গে ষষ্ঠ শ্রেণিতে অনলাইনে ভর্তির ক্ষেত্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে ১১ বছর বয়সের সময়সীমা নির্ধারণ করে দেয়া শর্তটিও স্থগিত করেন হাইকোর্ট। ফলে ১১ বছরের কম বয়সী শিক্ষার্থীদেরও ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তির ক্ষেত্রে আর কোনও বাধা রইলো না।

উচ্চ আদালতের এ আদেশের পর সেইদিনই ভর্তি লটারি স্থগিত ঘোষণা করে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)। পরে আবেদনের সময় আরও সাতদিন বাড়িয়ে পহেলা জানুয়ারি থেকে ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত আবেদন নেওয়া হয়। সোমবার লটারির মধ্য দিয়ে সেই আবেদনগুলোর নিষ্পত্তি হতে যাচ্ছে।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.