ষষ্ঠ শ্রেণির ইংরেজি বই: এত ভুল থেকে কী শিখবে শিক্ষার্থীরা

মাজহারুল ইসলামআ; ২০২৩ সালের অনেক শ্রেণির পাঠ্যবইয়ে ভুল আর ভুল। আমার চোখে দেখা ষষ্ঠ শ্রেণির ইংরেজি প্রথম পত্র বইয়ের কিছু সাধারণ ভুল দেখে রীতিমতো বিস্মিত হলাম। তাহলে আমাদের শিশুরা কি ভুল পড়া শিখে শিক্ষাজীবনের মাধ্যমিক স্তর শুরু করবে? প্রশ্ন উঠছে বইয়ের ছাপার মান, সম্পাদনা করার মান এবং বইয়ের লেখকদের লেখার মান নিয়ে। একটা দেশের পাঠ্যপুস্তক এমন বেহাল হবে কেন?

নিম্নে ষষ্ঠ শ্রেণির ২০২৩ সালের ইংরেজি বইয়ের কিছু ভুল উল্লেখ করা হলো:
বইয়ের ১৭ নম্বর পৃষ্ঠায় agesz লেখা, কিন্তু এটির শুদ্ধ বানান ages হবে এবং ১১ নম্বর পৃষ্ঠায় things লেখা, কিন্তু এটি Things হবে। বইয়ের ২৩ পৃষ্ঠায় ‘প্রাত্যাহিক’ লেখা, কিন্তু সঠিক বানান হবে ‘প্রাত্যহিক’। বইয়ের ৬৯ পৃষ্ঠায় modal verb লেখা, কিন্তু সঠিক হবে modal verbs। বইয়ের ৪৪ পৃষ্ঠায় hand up লেখা, কিন্তু সঠিক হবে hands up। বইয়ের ৮২ পৃষ্ঠায় conversion লেখা, কিন্তু সঠিক বানান হবে conversation। বইয়ের ৮৪ পৃষ্ঠায় younger লেখা, কিন্তু সঠিক হবে youngers। বইয়ের ৮৫ পৃষ্ঠায় C, D প্রশ্নের মধ্যে কোনো শব্দের নিচে আন্ডারলাইন করা হয়নি। বইয়ের ১০৪ পৃষ্ঠায় ‘পরে’ লেখা হয়েছে, কিন্তু সঠিক হবে ‘পড়ে’। বইয়ের ১২৬ পৃষ্ঠায় লেখা ‘সব বন্ধুদের’, কিন্তু হবে ‘সব বন্ধুকে’ বা ‘বন্ধুদের’। বইয়ের ১৪৯ পৃষ্ঠায় ‘খুজে’ লেখা, কিন্তু সঠিক বানান হবে ‘খুঁজে’। বইয়ের ১৬৫ পৃষ্ঠায় ‘কৃত্তিমভাবে’ লেখা, কিন্তু সঠিক হবে ‘কৃত্রিমভাবে’। বইয়ের ১৪৯ পৃষ্ঠায় Four friend’s লেখা, কিন্তু শুদ্ধ হবে Four friends। বইয়ের শেষ কভার পেজের নিচে Government of the peoples’ Republic লেখা, কিন্তু শুদ্ধ হবে Government of the people’s Republic।

ধারণা করছি, ষষ্ঠ শ্রেণির ইংরেজি বইতে আরও ভুল থাকতে পারে। যা আমার চোখে ধরা পড়েনি। মনোযোগ দিয়ে আরও কেউ দেখলে হয়তো ধরা পড়বে। ষষ্ঠ শ্রেণির ইংরেজি বইতে এত ভুল থাকলে, অন্য বইগুলোতে কী পরিমাণ ভুল থাকতে পারে, সেটি এখন দুশ্চিন্তার বিষয়।

আমরা কি তাহলে কোমলমতি শিশুদের ভুল শিক্ষা দিয়ে বড় করছি? এই দায় কার? মাধ্যমিকের শুরুতে এক শিক্ষার্থী ভুল ইংরেজি শিখে বড় হবে। ভবিষ্যতে সে আর সঠিকটা শিখবে কী করে? তার শুরুটাই যে ছিল গলদ! তাহলে এত কোটি কোটি টাকা খরচ করে বড় বড় শিক্ষাবিদ দিয়ে বই লেখানো বা প্রস্তুত করা কী কাজে এল? তাহলে আমাদের এত এত শিক্ষাবিদ ও পণ্ডিত ব্যক্তির কাজ কী? অল্পবয়সী শিক্ষার্থীদের জন্য একটা বই লেখায় ও সম্পাদনায় এত ভুল কী করে হয়?

২০২৩ সালে ৪ কোটির বেশি শিক্ষার্থীর জন্য প্রায় ৩৪ কোটি পাঠ্যবই বিনা মূল্যে বিতরণ করা হচ্ছে। এর মধ্যে প্রাথমিকে ৯ কোটি ৬৬ লাখের বেশি এবং মাধ্যমিকে ২৩ কোটি ৮৩ লাখ ৭০ হাজারের বেশি বই দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু এসব বই থেকে শিক্ষার্থীরা কী শিখবে, তা এখন প্রশ্নবিদ্ধ। মনে হচ্ছে, বই শুধু নামমাত্র, কাজের বেলায় সব ভুলে ভরা বইয়ের পাতায় পাতায়।

মাজহারুল ইসলাম
শিক্ষার্থী, ব্যবস্থাপনা বিভাগ
ফেনী সরকারি কলেজ

শিক্ষাবার্তা ডট কম/এএইচএম/০১/১৯/২৩