শৈত্যপ্রবাহে কাঁপছে নওগাঁ, তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ নওগাঁর ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ। বৃহস্পতিবার সকাল ৬টায় জেলায় সর্বনিম্ন ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

জেলার বদলগাছী কৃষি আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার কেন্দ্র সূত্রে জানা যায়, এর আগে বুধবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৭ দশমিক ২ এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২২ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছিল। গত তিনদিন ধরে নওগাঁয় তাপমাত্রা ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে অবস্থান করছে।

এদিকে প্রচণ্ড শীতের কারণে সাধারণ মানুষের স্বাভাবিক কাজকর্ম ব্যাহত হচ্ছে। দিনমজুর ও শ্রমজীবী মানুষ পড়েছেন বিপাকে। কর্মঘণ্টা কমে আসায় আয়-রোজগারও কমে এসেছে। এতে করে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।

অন্যদিকে শীতবস্ত্রের অভাবে কষ্ট পাচ্ছেন নিম্ন আয়ের মানুষরা। শীতের কারণে সন্ধ্যা হতে না হতেই ফাঁকা হয়ে যাচ্ছে জনমুখর স্থানগুলো।

মিনহাজ নামে এক কৃষক বলেন, ‘হঠাৎ করে এমন ঠাণ্ডা এবং কুয়াশায় মাঠে কাজ করতে আমাদের সমস্যা হচ্ছে। ঠাণ্ডার জন্য আমরা ঠিকমতো কাজ করতে পারছি না।’

খোকন বাবু নামে এক রিকশাচালক বলেন, ‘ঠাণ্ডায় মানুষ বাড়ি থেকে কম বের হয়। এতে যাত্রী পাওয়া যায় না। আর আয় না করতে পারলে আমরা খাব কী? এমন শীতে গাড়ি চালানো কষ্টসাধ্য। হাত অবশ হয়ে আসলে রিকশার চাকাও ঘোরানো যায় না।’

বদলগাছী কৃষি আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার কেন্দ্রের সহকারী আবহাওয়াবিদ মিজানুর রহমান বলেন, ‘বৃহস্পতিবার সকাল ৬টায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৬ দশমিক শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস।’

ত্রাণ ও পুনর্বাসন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, জেলায় এ পর্যন্ত ৫০ হাজার ৫০০টি কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। তবে কিছু সামাজিক ও সেচ্ছাসেবী সংগঠনও শীতবস্ত্র বিতরণ করছে।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/এএইচএম/০১/১৯/২৩