শিশুদের পরিপূর্ণ বিকাশের সহায়ক কো-কারিকুলার একটিভিটিস

অনলাইন ডেস্ক।।

বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাউবি) ল্যাবরেটরি স্কুল আয়োজিত এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বৃহস্পতিবার বাউবি’র বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা সম্মেলন ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাউবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. সৈয়দ হুমায়ুন আখতার শিশুদের উদ্দেশ্যে বলেন, পাঠ্য বইয়ের পাশাপাশি কো-কারিকুলাম ও এক্সট্রা কারিকুলামের মাধ্যমে শিশুদের পরিপূর্ণ জ্ঞানের বিকাশ ঘটানো সম্ভব। যার মাধ্যমে তারা পরবর্তীতে সমাজের গঠনমূলক কাজে অবদান রাখতে সক্ষম হবে।

তিনি আরও বলেন কো-কারিকুলাম ও এক্সট্রা কারিকুলাম কর্মকাণ্ড শিশুদের সাংস্কৃতিক, সামাজিক ও নান্দনিক বিকাশ ঘটিয়ে পরিপূর্ণ ব্যক্তি হিসেবে গড়ে ওঠতে সহায়তা করে।

এ বিষয়ে  শিক্ষক, অবিভাবক ও সংশ্লিষ্ট সবাই সম্মিলিতভাবে ভুমিকা রাখার আহ্বান জানান।তিনি শিশুদের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও শিল্পকর্মের মাধ্যমে তাঁদের প্রতিভা বিকাশের কথা উল্লেখ করেন। উপাচার্য ল্যাবরেটরি স্কুলের সাথে সংশ্লিষ্টদের সঠিক পরিকল্পনার মাধ্যমে স্কুল পরিচালনার নির্দেশনা দেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাউবি প্রো-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. নাসিম বানু, প্রো-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. মাহবুবা নাসরীন, বাউবি ল্যাবরেটরি স্কুলের সভাপতি ও স্কুল অব এডুকেশনের ডিন অধ্যাপক সুফিয়া বেগম।

এসময় বাউবি’র বিভিন্ন স্তরের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং ল্যাবরেটরি স্কুলের শিক্ষক, অভিভাবক, কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

অনুষ্ঠানে বাউবি ল্যাবরেটরি স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. শামসুল হক খানের নির্দেশনায় স্কুলের বিভিন্ন ক্লাসের শিশু শিক্ষার্থীরা তাদের গান,নাচ,কবিতা,আবৃত্তি ও নানা ধরনের উপস্থাপনার মাধ্যমে আমাদের স্বাধীনতা,সংস্কৃতি, গ্রামবাংলার চিত্র ও ঐতিহ্য তুলে ধরে।