শিশুদের টিকা দেওয়া হবে স্কুলেই

অনলাইন ডেস্ক।।

চলতি সপ্তাহেই ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের টিকা কার্যক্রম শুরু হবে। কার্যক্রমের শুরুতে ঢাকা শহরের কিছু বিদ্যালয়ে এ টিকা দেওয়া হবে। পর্যায়ক্রমে একই প্রক্রিয়ায় সারা দেশে শিশুদের টিকা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম।

সোমবার (১ আগস্ট) সকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল ১৫ দিনব্যাপী সেবাপক্ষ পালনের কর্মসূচি উদ্বোধন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় স্বাস্থ্যর ডিজি বলেন, শিশুদের টিকা বিষয়ে আমাদের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন আছে। আমাদের হাতে পর্যাপ্ত টিকাও মজুত আছে। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক দেশে এলেই দিনক্ষণ ঠিক করে টিকা কার্যক্রম শুরু করবো।

সুরক্ষা অ্যাপস বাচ্চাদের নিবন্ধনের জন্যে খুলে দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে রেজিস্ট্রেশন শুরু হয়েছে বলে শিক্ষামন্ত্রী তাকে জানিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

এদিকে, ২৮ জুলাই মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের এক অফিস আদেশে বলা হয়, শিক্ষার্থীদের বয়সসীমা হবে ৫ বছর থেকে ১১ বছর (১১ বছর ৩৬৪ দিন)। এ বয়সসীমার শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন গ্রহণ করতে অবশ্যই সুরক্ষা অ্যাপ বা সুরক্ষা ওয়েবসাইটে নিবন্ধিত হতে হবে।

এতে আরও বলা হয়, যেসব শিক্ষার্থীর ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর নেই তাদের অবশ্যই ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন করতে হবে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান প্রধান ও অভিভাবকরা বিষয়টি নিশ্চিত করবেন।

এরইমধ্যে ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের জন্য বিশেষভাবে তৈরি ১৫ লাখ ২ হাজার ৪০০ ডোজ ফাইজারের টিকা দেশে এসে পৌঁছেছে। কোভ্যাক্স ফ্যাসিলিটির আওতায় বাংলাদেশ এ টিকা পেয়েছে।