শিক্ষাব্যবস্থা ঢেলে সাজাতে কাজ করছে সরকার: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত: ৯:৪৬ পূর্বাহ্ণ, সোম, ২৫ জানুয়ারি ২১

নিউজ ডেস্ক।।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, শিক্ষাব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানোর জন্য কাজ করছে সরকার। শিক্ষা হবে আনন্দময়। জিপিএ-৫ এর উন্মাদনা নয়। জিপিএ-৫ পাওয়ার অসুস্থ প্রতিযোগিতা থেকে বের হয়ে আসতে হবে।

রোববার আন্তর্জাতিক শিক্ষা দিবস-২০২১ উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশ ইউনেস্কো জাতীয় কমিশনের উদ্যোগে ‘Recover and Revitalize Education for: the COVID 19 Generation’ শীর্ষক আলোচনা সভায় অনলাইনে সংযুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

ডা. দীপু মনি বলেন, ইন্ডাস্ট্রি একাডেমিয়া সম্পর্ক আরও বাড়াতে সরকার কাজ করছে এবং ইন্ডাস্ট্রির চাহিদা অনুযায়ী কারিকুলাম পরিবর্তন করা হচ্ছে। পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সফট স্কিল সম্পর্কে জানার ওপরও গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। লেখাপড়া করে ভালো চাকরি পাওয়াই যেন শিক্ষার্থীদের একমাত্র উদ্দেশ্য না হয়। দক্ষতা অর্জনের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের মধ্যে মানবিকতাবোধ, সততা ও নৈতিকতাবোধ জাগ্রত করতে হবে। বর্ণ, ভাষা, সংস্কৃতির ভিন্নতা সত্ত্বেও মানবিক গুণাবলীর বিকাশ ঘটিয়ে পারস্পরিক শান্তি ও সৌহার্দ্যপূর্ণভাবে বাস করার সংস্কৃতি শিক্ষার্থীদের মধ্যে জাগ্রত করতে হবে।

শিক্ষামন্ত্রী এ আলোচনায় ধারাবাহিক মূল্যায়নের প্রতি গুরুত্বারোপ করে বলেন, পরীক্ষানির্ভর সনদ সর্বস্ব শিক্ষা থেকে আমরা বের হয়ে আসার চেষ্টা করছি। আমরা ধারাবাহিক মূল্যায়ন পদ্ধতিকে গুরুত্ব দিচ্ছি।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের জীবনব্যাপী শিখতে এবং শেখাতে হবে। আমাদের শিক্ষার্থীদের জানতে হবে কীভাবে জীবনব্যাপী শেখা যায়।

বাংলাদেশ ইউনেস্কো জাতীয় কমিশনের সেক্রেটারি জেনারেল মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেনের সভাপতিত্বে এ আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব গোলাম মো. হাসিবুল আলম এবং বাংলাদেশে ইউনেস্কোর রিপ্রেজেন্টেটিভ মিজ বিয়াট্রিস কালডুন।

আলোচনা সভায় মূল আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দীন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, দক্ষতানির্ভর শিক্ষায় বাংলাদেশ সারা বিশ্বে দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে।

উচ্চশিক্ষায় ইন্ডাস্ট্রি একাডেমিয়া যোগাযোগের ওপর গুরুত্বারোপ করে উপমন্ত্রী বলেন, উচ্চশিক্ষায় বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনা জরুরি।

আলোচনা সভায় বক্তারা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ধীরে ধীরে খুলে দেওয়া এবং কারিগরি শিক্ষায় আরও বেশি গুরুত্বারোপ করার ওপর মতামত দেন।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.