শাবি উপাচার্য অবরুদ্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের হল প্রভোস্টের পদত্যাগ দাবিতে চতুর্থ দিনের মতো আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা।

তিনদফা দাবি মেনে না নেওয়ায় উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদকে অবরুদ্ধ করেছেন
শিক্ষার্থীরা।

রোববার বিকালে এক সপ্তাহ সময় নিয়ে শিক্ষার্থীদের দাবি পূরণের আশ্বাস দেয় প্রশাসন। কিন্তু প্রশাসনের সেই আশ্বাস মেনে না নিয়ে উপাচার্যকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইআইসিটি ভবনে অবরুদ্ধ করেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।

এর আগে বিকাল পৌনে ৩টায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদ এবং শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. তুলসী কুমার দাস।

এ সময় তারা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন, বিভাগীয় প্রধান এবং শিক্ষকদের সঙ্গে সব সমস্যা নিয়ে আলোচনায় বসেন উপাচার্য। উপাচার্য শিক্ষার্থীদের সব দাবি মেনে নিয়ে এক সপ্তাহের সময় চেয়েছেন তিনি।

এ সময় শিক্ষার্থীরা তা না মেনে নিয়ে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন। এ সময় উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ উপাচার্য ভবন থেকে বের হয়ে তার বাসভবনে যেতে চাইলে বাধা দেন আন্দোলনকারীরা। একপর্যায়ে উপাচার্যকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইআইসিটি ভবনে অবরুদ্ধ করেন শিক্ষার্থীরা।

এরপর ভবনের সকল বহির্গমণ পথে তালা ঝুলিয়ে দেন শিক্ষার্থীরা। এরপর কোষাধ্যক্ষ, ছাত্র উপদেষ্টা, প্রক্টর এবং অন্যান্য শিক্ষকরা ভেতরে ঢুকতে চাইলে তাদের বাইরে আটকে রাখেন শিক্ষার্থীরা।

এ প্রতিবেদন লেখার সময় বিকাল পৌনে ৪টা পর্যন্ত উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ ভবনের ভেতরে অবরুদ্ধ ছিলেন।

এর আগে দাবি মেনে নেওয়ার আগ পর্যন্ত অনির্দিষ্টকালের জন্য সব বিভাগের ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করেছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।