রাবিতে অনুষ্ঠিত হলো বিনামূল্যে মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

‘সবার জন্য মানসিক স্বাস্থ্য ও ভালো থাকাটাই হোক বৈশ্বিক অঙ্গীকার’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) দিনব্যাপী বিনামূল্যে মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও কাউন্সেলিং কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের টুকিটাকিতে চত্তরে ‘মনের বন্ধু’ বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে এই কার্যক্রম পরিচালনা করেন। এসময় তারা বিভিন্ন লেখা প্রদর্শনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের কে মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতন করতে থাকেন।

মানসিক স্বাস্থ্য কাউন্সিলর মো: আবদুল লতিফ সম্রাট বলেন, দেশের প্রতিটি মানুষের মানসিক স্বাস্থ্য নিশ্চিত করণের লক্ষ্যে আমরা বিভিন্ন ধরনের কাজ করে থাকি। এরই ধারাবাহিকতায় আমরা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বিনামূল্যে মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও কাউন্সেলিং এর আয়োজন করেছি। আমরা অফলাইন এবং অনলাই দুই মাধ্যমেই সেবা প্রদান করে থাকি। শুরু থেকেই আমরা শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থের বিষয়ে বেশ সচেতন তাই আমাদের পেইড সার্ভিসে বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা আছে। আপনাদের মনের যত্নে মনের বন্ধু সবসময় আপনাদের পাশে আছে।

প্রোগ্রাম সহকারী আশফিয়া বলেন, সকাল থেকে আমারা যথেষ্ট পরিমান সাড়া পাচ্ছি। এখন পর্যন্ত প্রায় শতাধিক শিক্ষাথী তাদের মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেছে। আমরা জানতে পেরেছি যারা এই সেবাটা নিচ্ছে তাদেরও ভালো লাগছে। এখানে রেজিস্টেশন করে টেস্ট করার ব্যবস্থা করা হয়েছে এবং যদি তাদের টেস্ট দেখে মনে হয় তাদের কাউন্সেলিং দরকার তাদেরকে আমারা তিনটার পর থেকে কাউন্সেলিং কার্যক্রম পরিচালনা করাবো। সবাই তাদের মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে সন্তুষ্ট বলেও জানান তিনি।

মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে আসা শিক্ষার্থী আবু সাঈদ বলেন, আমি বেশ কিছু দিন ধরে হতাশায় আছি তাই ভাবলাম আমার মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা দরকার । তবে পরীক্ষা করে বুঝতে পারলাম আমার তেমন কোনো সমস্যা নেই। তাদের এই কার্যক্রম অনেক ভালো লাছে। এমন উদ্যোগ সত্যি প্রসংশনীয়।

প্রসঙ্গত, “মনের বন্ধু, মানসিক স্বাস্থ্য সেবাকেন্দ্র। সব ধরনের মানসিক-সামাজিক-পারিবারিক সমস্যা-সংকোচ-দ্বিধায় মানসিক সেবা দিয়ে থাকে ‘মনের বন্ধু’। ২০১৬ সাল থেকে প্রশিক্ষিত অভিজ্ঞ মনোবিদেরা সব ধরনের গোপনীয়তা বজায় রেখে সেবা দিয়ে আসছে এই প্রতিষ্ঠানটি। মনের বন্ধু যা করে: ওয়ান টু ওয়ান কাউন্সিলিং, মোবাইল ও ভিডিও কাউন্সিলিং, কর্মশালা, ফেসবুক পাতার মাধ্যমে মানসিক স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে থাকে।”