যশোরের বাঘারপাড়ায় প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার, বাঘারপাড়াঃ ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে বাঘারপাড়ায় প্রথমিক বিদ্যালয়ের এক প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার ওই ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে বাঘারপাড়া থানায় মামলা করেন। অভিযুক্ত মিজানুর রহমান বরভাগ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। সে উপজেলা সদর সংলগ্ন দোহাকুলা গ্রামের নূর আলী মোল্যার ছেলে। এর আগে মিজানুর রহমান আগ-দোহাকুলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে থাকাকালীন একই রকম অভিযোগে মামলা হয়।

অভিযোগকারী সুত্রে জানা গেছে, যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার বরভাগ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান(৫০) বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১০) গত বুধবার স্কুল ছুটির পর তাকে অফিসে কক্ষে দেখা করতে বলেন। মেয়েটি অফিস কক্ষে yযাওয়ার পর মিজানুর রহমান তাকে জড়িয়ে ধরে। এক পর্যায়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। মেয়েটি চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন বিদ্যালয়ে দৌঁড়ে আসলে মিজানুর রহমান তাকে ছেড়ে দেয়। এরপর মিজানুর রহমান মটর সাইকেল যোগে সেখান থেকে সটকে পড়েন। পরদিন মেয়েটির পিতা বাঘারপাড়া থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ০২।
বরভাগ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আগে মিজানুর রহমান আগ-দোহাকুলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের দ্বায়িত্বে ছিলেন। এ প্রতিষ্ঠানে চাকুরি করা কালীন সময়েও তিনি একই ঘটনা ঘটান। এ নিয়ে মামলাও হয়। মামলার কারণে মিজানুর রহমান চাকুরি থেকে সাচপেন্ট হন। পরে বাদী পক্ষ মামলা প্রত্যাহার করলে সে পুনরায় চাকুরি ফিরে পান।
বাঘারপাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শেখ ওহিদুজ্জামান বলেন, প ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে বরভাগ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আসামী পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।