ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন নিয়ে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

নাটোরের গুরুদাসপুরের নওপাড়া দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। বিষয়টি নিয়ে স্কুলের অভিভাবকসহ বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে গিয়ে প্রতিবাদ জানায় এবং ইউএনও অফিসে প্রতিকার চেয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

এ ব্যাপারে ১২ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় দফায় তফসিল ঘোষিত হলেও তা বাস্তবায়ন করা হয়নি বলে মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. ওয়াহেদুজ্জামান তাদের আশ্বস্ত করেন। তবে শিক্ষা কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন, পূর্বের তফসিল বাতিল হওয়ার পরে নতুন করে কোনো তফসিল ঘোষণা হয়নি এবং মনোনয়ন পত্রও বিক্রয় করা হয়নি।

এদিকে অবৈধভাবে গোপনে নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করে কমিটি গঠনের বিরুদ্ধে গুরুদাসপুরের সহকারী জজ আদালতে কামরুল ইসলাম নামে এক অভিভাবক বাদী হয়ে ২১ সেপ্টেম্বর মামলা করেছেন (মামলা নং- ১৪৫/২০২২ অঃ প্রঃ)। উপজেলার একাডেমিক সুপারভাইজার ও ম্যানেজিং কমিটির প্রিজাইডিং কর্মকর্তা মো. বজলুর রহমান ও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহ আলমসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে ওই মামলা করা হয়।

অপরদিকে মামলা করা সত্ত্বেও আবারও প্রধান শিক্ষক শাহ আলম নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করে গোপনে তার পছন্দের অভিভাবকদের নির্বাচিত করার পাঁয়তারা করছেন বলে আব্দল মতিন, শুকুর আলীসহ এলাকাবাসী সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন।

স্থানীয় চাপিলা ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান এলাকাবাসীর সমর্থনে বলেন, অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনে যারা নির্বাচিত হবেন তাদেরকে আমরা স্বাগত জানাব।

কিন্তু গোপনে আঁতাত করে অন্যায়ভাবে কাউকে ম্যানেজিং কমিটির সদস্য হতে দেওয়া যাবে না।

প্রধান শিক্ষক মো. শাহ আলম বলেন, গত ২০,২১ ও ২২ আগস্ট মনোনয়ন পত্র জমাদানের শেষ তারিখ ছিল। কিন্তু ওই দিন মেহেদী হাসান ও শরিফুল ইসলাম নামে দুইছাত্র সহকারী শিক্ষক ওয়াজেদা বেগমকে থ্রেট করলে এতে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটতে পারে মর্মে ইউএনও’র পরার্মশে নির্বাচনী তফসিল বাতিল করা হয়েছে।