মেসিই সেরা,পেলে ও ম্যারাডোনা নয়

সর্বকালের সেরা ফুটবলার কে? এমন প্রশ্নের জবাবে যে কারো মুখেই সবার আগে আসার কথা পেলে বা ম্যারাডোনার নাম। তবে আর্জেন্টিনার ক্ষুদে জাদুকর মেসিও নিজেকে নিয়ে গেছেন এমন পর্যায়ে যে তাকেও রাখতে হয় পেলে-ম্যারাডোনাদের কাতারেই। মেসির সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী পর্তুগিজ তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকেও রাখতে হয় একই তালিকায়। তবে এবার অন্য সবাইকে ছাপিয়ে সর্বকালের সেরার তালিকায় সবার উপরে উঠে এলেন আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি মেসি।

ফুটবল বিষয়ক ওয়েবসাইট ফোরফোরটু সর্বকালের সেরা ১০০ ফুটবলের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে, যেখানে পেলে-ম্যারাডোনা আবা রোনালদোকে ছাপিয়ে সবার উপরে রয়েছেন এলএম টেন।

যে আলোচনা আর দ্বন্দের ইতি টানতে ফোরফোরটু এই তালিকা প্রকাশ করেছেয় সেটি বরং উল্টো জন্ম দিয়েছে বিতর্কের। অনেক ফুয়াটবল বোদ্ধার মতেই মেসি সেরা তবে পেলে-ম্যারাডোনাকে ছাপিয়ে যাওয়ার জন্য অন্তত অধরা বিশ্বকাপ জিততেই হবে মেসিকে। ফুটবল ক্যারিয়ারে সম্ভাব্য প্রায় সকল শিরোপা ছুঁয়ে দেখার স্বাদ পেলেও বিশ্বকাপ্টা এখনও অধরা রয়ে গেছে সাতবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী এই ফুটবলারের।

বিতর্কের জন্ম দিয়েছে আরেকটি জায়গাতেও। ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি রোনালদো জায়গা পেয়েছেন  তালিকার ১০ নম্বরে। ফুটবল ক্যারিয়ারে বিশ্বকাপসহ অন্যান্য অনেক শিরোপা জেতা দ্য ফেনোমেনন ভিন্ন ভিন্ন বিশ্বকাপে জিতেছেন সেরা গোলদাতা বআর সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কারও। নিজের ক্যারিয়ারে এতোকিছু অর্জনের পরও তাকে তালিকার ১০ নম্বরে দেখাটা যেকোনো ফুটবল ভক্তেরই হয়তো সহজে হজম হবে না।

পেলে-ম্যারাডোনা বা রোনালদোরা নিজেদের ক্যারিয়তে বিশ্বকাপসহ অন্যান্য এতো ট্রফি জেতার পরেও তালিকায় মেসির নিচে। আর এখনও বিশ্বকাপ ছুঁয়ে না দেখা মেসি সবার শীর্ষে, এই ব্যাপারটি নিয়েই ফুটবল বোদ্ধাদের মধ্যে সৃষ্টি হয়েছে আলোচনা-সমালোচনার। আবার অনেকের মানদণ্ডে বিশ্বকাপ শিরোপা যদি তেমন কোনো প্রভাব নাই ফেলে তাহলে মেসির প্রতিদ্বন্দ্বী পর্তুগিজ তারকা রোনালদো কেন তালিকার চার নাম্বারে। দেশের হয়ে ইউরো শিরোপাসহ ক্লাব ক্যারিয়ারেও অসংখ্য শিরোপা জিতেছেন পাঁচ বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী সিআর সেভেন।

তবে ফুটবল ইতিহাসের সর্বকালের সেরা নিয়ে এই বিতর্ক যেমন চলে আসছে তা চলবেও ভবিষ্যতে। তার মাঝেই ফোরফোরটুন অনেকটা গলদঘর্ম হয়েই চেষ্টা করেছেন এই তালিকা তৈরি করতে।

ফোরফোরটুনের তালিকা অনুযায়ী সর্বকালের সেরা দশ ফুটবলার:

১. লিওনেল মেসি (আর্জেন্টিনা)
২. ডিয়েগো ম্যারাডোনা (আর্জেন্টিনা)
৩. পেলে (ব্রাজিল)
৪. ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো (পর্তুগাল)
৫. জিনেদিন জিদান (ফ্রান্স)
৬. ইয়োহান ক্রুইফ (নেদারল্যান্ড)
৭. জর্জ বেস্ট (ইংল্যান্ড)
৮. ফ্রাঞ্জ বেকেনবাওয়ার (জার্মানি)
৯. ফেরেঙ্ক পুসকাস (হাঙ্গেরি)
১০. রোনালদো নাজারিও (ব্রাজিল)