মানবদেহের অজানা কিছু আজব তথ্য

প্রকাশিত: ৮:৩০ পূর্বাহ্ণ, শনি, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২১

অনলাইন ডেস্ক ||

আমাদের সবার ধারণা, আমরা নিজেদের দেহ সম্পর্কে পুরোপুরি জানি বা বুঝি। কিন্তু নিজের শরীর সম্পর্কে হয়তো ৭০% মানুষই জানেনা। অজানা রয়ে গেছে অনেক কিছুই। আমরা সাধারণত জানি যে, আমাদের দেহ কীভাবে কাজ করে এবং এতে কী ধরণের পরিবর্তন ও প্রক্রিয়াগুলো ঘটছে।

প্রকৃতপক্ষে মানবদেহে জটিল এবং রহস্যময় প্রক্রিয়া বিদ্যমান, যা মাঝেমধ্যে সবচেয়ে দক্ষ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও বিজ্ঞানীদেরও বিভ্রান্ত করে ফেলে।

আমাদের শরীরের বিষয়ে ২১ টি চমকপ্রদ তথ্য রয়েছে যা জানলে আপনি মুগ্ধ ও বিস্মিত হবেন। এবার আসুন জেনে নিই বিষয়গুলো :

১ . জিভ দেখে অনেক কিছু বুঝা যায়। জিভের নমুনা একেবারে অনন্য। তাই কাউকে জিভ দেখানোর সময় এটি মনে রাখবেন।

২. একটি চুল ঝুলন্ত আপেলের ওজন ধরে রাখতে পারে। তবে বিজ্ঞানীরা আপেলের মাত্রা নির্দিষ্ট করেন নি।

৩. কোনও ব্যক্তির মুখে বিদ্যমান ব্যাকটিরিয়ার সংখ্যা পৃথিবীর মোট লোক সংখ্যার সমান বা তারও বেশি।

৪. ব্যক্তির নখগুলো নরম ও ভঙ্গুর এবং চাঁদহীন হলে তা অতিরিক্ত থাইরয়েডের নির্দেশ করতে পারে।

৫. মস্তিস্কের স্পন্দনের গতি ঘন্টায় প্রায় ৪০০ কিলোমিটার।

৬ আমাদের ধারনা চার ধরণের রক্ত রয়েছে আমাদের দেহে। আসলে রক্তের ধরন ২৯ টি। তাদের মধ্যে বিরলতম হচ্ছে বোম্বাই সাব টাইপ।

৭. মাত্র একদিনে আমাদের রক্ত ​​১৯ ৩১২ কিলোমিটার দূরত্ব ‘দৌড়ায়’।

৮. মানবদেহের সকল স্নায়ুর মোট দৈর্ঘ্য ৪৫ কিলোমিটার।

৯. একজন মানুষ প্রতিদিন প্রায় ২০০০০ বার শ্বাস নেয়।

১০. বিশ্বের প্রায় সকল লোকের চোখের পাতায় ‘ডেমোডেক্স’ নামের একটি বিশেষ ধরনের উপাদান থাকে।

১১. মানুষের চোখ ১ কোটি পর্যন্ত নানা রংয়ের মধ্যে পার্থক্য করতে পারে। কিন্তু আমাদের মস্তিষ্ক এর সবগুলো মনে রাখতে পারে না।

১২. আমাদের কান প্রায় অবিশ্বাস্য গতিতে জীবনব্যাপী বাড়তে থাকে। কান প্রতি বছর এক মিলিমিটারের এক চতুর্থাংশ পরিমাণ বৃদ্ধি পায়।

১৩. আমাদের হৃদপিণ্ড বছরে ৩৫ মিলিয়ন বার বিট দেয়।

১৪. মানবদেহ প্রতিদিন প্রায় এক মিলিয়ন ত্বকের কোষ হারিয়ে ফেলে, যার পরিমাণ বছরে ২ কিলোগ্রাম হয়।

১৫. আপনার ত্বকের প্রতি ১ বর্গ সেন্টিমিটারে প্রায় শতাধিক ব্যথা সংবেদক রয়েছে।

১৬. ছেলেদের জিহ্বার পৃষ্ঠে মেয়েদের চেয়ে স্বাদের কুঁড়ি(টেষ্ট বাট) কম থাকে।

১৭. একজন ব্যক্তি তার জীবনে গড়পড়তায় প্রায় ৩৫ টন খাদ্যগ্রহণ করে।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.