মাদরাসা শিক্ষকদের উচ্চতর স্কেলের আবেদন শুরু

প্রকাশিত: ১০:৫২ পূর্বাহ্ণ, বৃহঃ, ৪ ফেব্রুয়ারি ২১

অনলাইন ডেস্ক ||

 মাদরাসা শিক্ষকদের উচ্চতর গ্রেডের আবেদন গ্রহণ শুরু হয়েছে অবশেষে। শিক্ষকদের আবেদনের জন্য মেমিস সফটওয়্যার প্রস্তুত। শিক্ষকরা আবেদনের নির্ধারিত সময়ে উচ্চতর গ্রেড প্রাপ্তির আবেদন করতে পারবেন। মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা বলেন, শিক্ষকদের উচ্চতর গ্রেডের আবেদনের জন্য মেমিস সফটওয়্যার প্রস্তুত। শিক্ষকরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। আবেদনের নির্ধারিত সময়ে শিক্ষকরা উচ্চতর গ্রেডের আবেদন করতে পারবেন।

কর্মকর্তারা আরও বলেন, মাধ্যমিকের শিক্ষকদের যেভাবে আবেদন করতে হচ্ছে, মাদরাসা শিক্ষকদেরও উচ্চতর গ্রেড পাওয়ার আবেদন একইভাবে করতে হবে।

তবে, মাদরাসা শিক্ষকদের চাকরির ১০ বছর পূর্তিতে প্রাপ্য উচ্চতর গ্রেডের আবেদন করতে পারবেন। ১৬ বছর পুর্তির উচ্চতর গ্রেডের আবেদন এখনো নেয়া হচ্ছে না। এ বিষয়ে মামলা চলমান থাকায় শিক্ষকদের দ্বিতীয় বা ১৬ বছর পুর্তিতে প্রাপ্য উচ্চতর গ্রেডের আবেদন নেয়ার নির্দেশনা এখনো অর্থ মন্ত্রণালয় দেয়ানি বলে মন্তব্য করেছেন কর্মকর্তারা।

এমপিও নীতিমালা অনুযায়ী মাদরাসা শিক্ষকদের উচ্চতর স্কেল দেয়ার নির্দেশ দিয়েছিল শিক্ষা মন্ত্রণালয়। সে অনুযায়ী মাদরাসা শিক্ষকদের উচ্চতর স্কেলের আবেদন পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হলেও যোগ্য শিক্ষকদের আবেদন করতে পারছিলেন। কারণ মেমিস সফটওয়্যারে আবেদনের সুযোগ দেয়া হচ্ছিল না। সে জটিলতা কেটেছে। শিক্ষকদের আবেদনের সুযোগ দেয়া হয়েছে।

২০২০ খ্রিষ্টাব্দের ২ জানুয়ারি কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ থেকে মাদরাসা শিক্ষকদের উচ্চতর গ্রেড দেয়ার আদেশ জারি করা হয়েছিল। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদারাস শিক্ষা বিভাগ থেকে মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠানো আদেশে বলা হয়, মাদরাসার জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা ২০১৮ জারির তারিখ অর্থাৎ ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দের ১৯ জুলাই থেকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে কার্যকর হবে। সে অনুযায়ী মাদরাসার শিক্ষক-কর্মচারীদের অনুকূলে সৃষ্ট বিভিন্ন সুবিধা বা উচ্চতর স্কেল দেয়ার লক্ষ্যে মাদরাসার জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা এবং অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক বিধি বিধান অনুসরণ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.