মঞ্চে ২ চেয়ার ফাঁকা রেখেই সম্পন্ন হলো বরিশাল বিএনপির গণমহাসমাবেশ

অনলাইন ডেস্ক।।

বরিশালে বিএনপির গণসমাবেশ শেষ হয়েছে। অন্যান্য বিভাগীয় শহরের সমাবেশের মতো বরিশালের সমাবেশেও মঞ্চে দুটি চেয়ার ফাঁকা রাখা হয়েছে।

জনসমাবেশস্থল লোকে লোকারণ্য হয়ে যাওয়ায় নির্ধারিত সময়ের ৩ ঘণ্টা আগেই বেলা ১১টায় সমাবেশ শুরু হয়ে যায়। সমাবেশের প্রধান অতিথি বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দুপুরের দিকে সমাবেশস্থলে আসেন।  শনিবার ভোর থেকেই বিএনপির নেতা-কর্মীরা সমাবেশস্থল নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যানে আসতে শুরু করেন। যদিও বৃহস্পতিবার রাত থেকেই সমাবেশস্থলে রাতযাপন শুরু করেছিলেন অনেক নেতাকর্মী। তারা রাতে সেখানে অস্থায়ী তাবু টানিয়ে রাতযাপন করেন। নেচে গেয়ে আনন্দ করে রাত্রি যাপন করেন। পরিবহন ধর্মঘটের কারনে কয়েকদিন আগে থেকেই বিভিন্ন জেলা থেকে নেতাকর্মীরা এসে অবস্থান নেয় বঙ্গবন্ধু উদ্যানে।

আজ বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সমাবেশস্থল কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। পরে নেতাকর্মীরা আশপাশের সড়কে অবস্থান নেন।

বেলা ১১টায় সমাবেশ শুরু হয়েছে। প্রথমে কোরআন থেকে তেলওয়াত করা হয়। পরে দোয়া মোনাজাত করা হয়। দোয়া মোনাজাতে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন তারেক রহমানের সুস্থতা ও দীর্ঘায়ু কামনা করা হয়।

সেইসঙ্গে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানসহ প্রয়াত এবং বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে নিহত নেতা-কর্মীদের রুহের মাগফিরাত কামনা করা হয়। এরপর জাতীয় সংগীত পরিবেশন শেষে জেলা-উপজেলা থেকে আসা নেতারা বক্তব্য দেওয়া শুরু হয়েছে।

সভামঞ্চের মাঝের দুটি চেয়ার বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের জন্য খালি রাখা হয়েছে।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. বিলকিস জাহান শিরীন বলেন, সরকারের কোনো বাধাই কাজে আসেনি। মাঠ নেতা-কর্মীসহ সাধারণ মানুষে পরিপূর্ণ হয়ে গেছে। সাধারণ মানুষ ও নেতা- কর্মীরা হেটে, ভ্যান, রিকশা চড়ে, ট্রলার, নৌকা, মাছ ধরা নৌকা ও লঞ্চে সমাবেশ স্থলে এসে পৌঁছেছেন।