ব্র্যাকে “আমাদের কণ্ঠ, আমাদের ভবিষ্যৎ” শীর্ষক শিল্পকর্ম প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:

ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির ব্র্যাক জেমস পি গ্র্যান্ট স্কুল অফ পাবলিক হেলথের দ্য সেন্টার অফ এক্সেলেন্স ফর জেন্ডার, সেক্সুয়াল অ্যান্ড রিপ্রোডাক্টিভ হেলথ অ্যান্ড রাইট (সিজিএসআরএইচআর) স¤প্রতি রাজধানীর দৃক গ্যালারিতে তিন দিনব্যাপী শিল্পকর্ম প্রদর্শনীর আয়োজন করে। ভারতের সিআরইএ এর সহযোগিতা এবং নেদারল্যান্ডের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে ‘আমাদের কণ্ঠ, আমাদের ভবিষ্যৎ’ প্রকল্পের অংশ হিসেবে কাঠামোগতভাবে অবদমিত নারীদের অধিকার নিয়ে সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে কাজ করছে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির ব্র্যাক জেমস পি গ্র্যান্ট স্কুল অফ পাবলিক হেলথ।

অরোধ্য ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় আমাদের কণ্ঠ, আমাদের ভবিষ্যৎ প্রকল্পের অধীনে অনুষ্ঠিত আর্ট ফেলোশিপ প্রোগামে অংশ নেওয়া ১১ জন নির্বাচিত ফেলোকে নিয়ে এই প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। ১৫ থেকে ১৯ বছর বয়সী এই ১১ জন তরুণ শিল্পী সৃজনশীল কাঠামোগতভাবে অবদমিত নারীদের অধিকার নিয়ে সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে ক্যানভাসে আঁকা ছবি, ডিজিটাল ইলাস্ট্রেশন, কমিক স্ট্রিপ, কবিতা, ছোটগল্পসহ বিভিন্ন মাধ্যম ব্যবহার করে শিল্পকর্ম তৈরি করেন। সমাজে কাঠামোগতভাবে অবদমিত নারীদের অধিকার নিয়ে আলোচনা শুরু করে মানবাধিকার বিষয়ক সচেতনতার মাধ্যমে তরুণ শিল্পীদের সৃজনশীল বিকাশের জন্য একটি প্লাটফর্ম তৈরি করাই ছিল এই প্রদর্শনীর উদ্দেশ্য।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রকল্পের সমন্বয়কারী ফারহানা আলম প্রকল্পটির পটভ‚মি নিয়ে সংক্ষিপ্ত ধারণা দেন। স্বাগত বক্তব্য ব্র্যাক জেমস পি গ্র্যান্ট স্কুল অব পাবলিক হেলথের ডিন প্রফেসর সাবিনা ফায়েজ রশীদ বাংলাদেশে কাঠামোগতভাবে অবদমিত নারীদের অধিকার নিয়ে তরুণ প্রজন্মের মধ্যে সচেতনতা তৈরির গুরুত্ব বিষয়ে আলোচনা করেন। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বাংলাদেশে নেদারল্যান্ড দূতাবাসের ডেপুটি হেড অব মিশন থিজস ওয়াউডস্ট্রা। অনুষ্ঠানে একটি কর্মশালায় আর্ট ফেলোশিপ প্রোগ্রামের সহযোগী প্রতিষ্ঠান অরোধ্য ফাউন্ডেশন প্রদর্শনী বাস্তবায়নে তাদের অভিজ্ঞতাসমূহ তুলে ধরে এবং পরবর্তীতে এই কর্মশালায় ফেলোশিপ পাওয়া তরুণ শিল্পীরা তাদের অভিজ্ঞতাসমূহ তুলে ধরেন। আমন্ত্রিত অতিথিদের প্রদর্শনী ঘুরে দেখার মধ্য দিয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষ হয়।

এই প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণকারী স্কুল ও কলেজপড়ুয়া শিক্ষার্থীদের নিয়ে দুটি আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে শিক্ষার্থী অংশগ্রহণকারী শিল্পীরা কাঠামোগতভাবে অবদমিত নারীদের নিয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতা ও এই বিষয়ে নিজেদের দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরেন। অরোধ্য ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক অন্তরা ফারনাজ খান এই আলোচনা অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন।