বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের মানববন্ধনে ৫ দাবী

অনলাইন ডেস্ক।।

বেতন গ্রেড ও পদবি পরিবর্তনসহ পাঁচ দফা দাবি আদায়ে মানববন্ধন করেছেন বাংলাদেশ বেসরকারী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তৃতীয় শ্রেণি কর্মচারীরা। রোববার (১৫ মে) সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাংলাদেশ বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিষদ এ মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে।

মানববন্ধনে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দসহ দেশের জেলা ও উপজেলার প্রায় এক হাজার কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন- কমিটির প্রধান উপদেষ্টা মাে. রফিকুল ইসলাম তালুকদার মন্টু, সভাপতি কার্তিক চন্দ্র সরকার, সােলায়মান হােসেন প্রামাণিক, সভাপতি নারগিছ নাহার জবায়দুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. সুমন মিয়া, সাধারণ সম্পাদক বাজন চন্দ দাস সাংগঠনিক সম্পাদক মাে. জাফর আলীসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

নেতবৃন্দ বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর কাছে কর্মচারীদের মধ্যে বৈষম্যের কথা তুলে ধরে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধি জন্য পদোন্নতি ও ১১তম গ্রেডে বেতন/ভাতার দাবি জানান বক্তারা।

এছাড়া দ্রুততর সময়ে পাঁচ দফা দাবি বাস্তবায়নে কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীকে আহ্বান জানানো হয়। অন্যথায় বৃহত্তর কর্মসূচি ঘোষণার মাধ্যমে দাৰি আদায়ের ঘােষণা দেয়া হয়।

মানববন্ধনে যে পাঁচ দাবি তুলে ধরা হয় তা হলো – এক.তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারীদের ন্যুনতম বেতন ১১তম গ্রেডে দিতে হবে। শিক্ষার্থী সংখ্যার অনুপাতে তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারীর সংখ্যা বৃদ্ধি করতে হবে।

দুই. পদের নাম পরিবর্তন করে প্রশাসনিক কর্মকর্তা/অফিস সুপার দিতে হবে এবং পেশাগত উন্নয়নে কম্পিউটারসহ অন্যান্য বিষয়ে উচ্চতর ট্রেনিং এর দ্রুত ব্যবস্থা ব্যবস্থা করতে হবে।

তিন. শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রণীত চাকুরীবিধি-২০১২ দ্রুত বাস্তবায়ন ও প্রজ্ঞাপন অনুসারে ম্যানেজিং কমিটি/গভনিং বডিতে কর্মচারীদের একজন সদস্য রাখার ব্যবস্থা করতে হবে।

চার. শিক্ষাগত যােগ্যতা ও অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে দ্রুত উচ্চতর পদে পদোন্নতির ব্যবস্থা করতে হবে।

পাঁচ. সব এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ করতে হবে।