বেকারত্বের হাহাকারে জাবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

শিক্ষাবার্তা ডেস্কঃ চাকরি না পেয়ে হতাশাগ্রস্ত হয়ে আত্মহত্যা করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী হাবিবুর রহমান (২৭)।

শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) দুপুরে গ্রামে নিজ বাড়িতে ফ্যানের সঙ্গে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

নিহত হাবিবুর রহমান যশোরের চৌগাছা উপজেলার স্বরূপদাহ ইউনিয়নের জলকার-মাধবপুর গ্রামের মৃত আয়নাল হকের ছেলে।

জানা গেছে, আমার ছোট ভাইয়ের এক চোখ নষ্ট ছিল। সম্প্রতি ফলাফল প্রকাশ হওয়া প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষক পদেও তিনি ভাইভা দিয়েছিলেন। তবে প্রতিবন্ধী কোটা থাকলেও চূড়ান্তভাবে তিনি নির্বাচিত হননি। এ নিয়ে তার মধ্যে হতাশা ছিল। এই হতাশা থেকেই আত্মহত্যা করেন হাবিব।

হাবিবুরের বড় ভাই মাহবুব রহমান বলেন, প্রাথমিকের রেজাল্ট দেওয়ার পর চাকরি না হওয়ায় আবারও পড়াশোনা শুরু করলে চোখের ব্যথা আরও বেড়ে যায়। এতে সে ভয় পেয়ে যায় যে আরেকটা চোখও হয়তো নষ্ট হয়ে যাবে। সবমিলিয়ে সে হতাশায় সে এ ঘটনা ঘটিয়ে ফেলেছে।

তিনি আরও বলেন, ওর আরও সুযোগ ছিল, বয়সও ছিল। আমি নিজেই এখনো চাকরি পাইনি। ও তো প্রথমবার প্রাইমারিতে টিকেছিল। ও আরও ভালো চাকরি পেত। কারণ ওর প্রতিবন্ধী সনদও রয়েছে। কাজেই গ্রামের লোক যে বলছে প্রাইমারির চাকরি না পেয়েই সে আত্মহত্যা করেছে, এটা সঠিক নয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চৌগাছা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইয়াসিন আলম চৌধুরী বলেন, পরিবারের সদস্যদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/এএইচএম/০১/২২/২৩    

দেশ বিদেশের শিক্ষা, পড়ালেখা সম্পর্কিত সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম, ছবি, ভিডিও প্রতিবেদন সবার আগে দেখতে চোখ রাখুন শিক্ষাবার্তায়