বাংলাদেশ একাদশে ৩ পরিবর্তন

ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচের একাদশ থেকে ৩ পরিবর্তন এনেছে বাংলাদেশ। পাকিস্তানের বিপক্ষে না খেলা অধিনায়ক সাকিব আল হাসান অনুমতিভাবে ফিরলেন দলে। সঙ্গে একাদশে এসেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত ও শরিফুল ইসলাম।

ব্যাটিং ব্যর্থতায় বাদ পড়েছেন সাব্বির রহমান। সবশেষ চার টি-টোয়েন্টিতে তার রান যথাক্রমে ১৪, ১২, ০ ও ৫। টপ অর্ডার এই ব্যাটসম্যানের জায়গায় একাদশে ডাকা হয়েছে শান্তকে।

শান্ত সবশেষ টি-টোয়েন্টি খেলেছেন হারারেতে, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। ২০১৯ সালে এই সংস্করণে অভিষেক হওয়া এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান এখন পর্যন্ত খেলেছেন ৯ ম্যাচ। খুব একটা ভালো করতে পারেননি। ১৮.৫০ গড় ও ১০৪.২২ স্ট্রাইক রেটে তার রান ১৪৮।

পাকিস্তানের বিপক্ষে অকাতরে রান দেওয়া মুস্তাফিজুর রহমানকে রাখা হয়নি একাদশে। ওই ম্যাচে ৪ ওভারে ৪৮ রান দিয়ে কোনো উইকেট নিতে পারেননি বাঁহাতি এই পেসার।

তার জায়গায় এসেছেন শরিফুল। সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে সবশেষ সিরিজে খেলেছিলেন বাঁহাতি এই পেসার। সাকিব ফেরায় বাদ পড়েছেন নাসুম আহেমদ।

বাংলাদেশ একাদশ: সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), নুরুল হাসান সোহান, আফিফ হোসেন, লিটন দাস, মোসাদ্দেক হোসেন, ইয়াসির আলি চৌধুরি, হাসান মাহমুদ, তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, নাজমুল হোসেন শান্ত, মেহেদী হাসান মিরাজ।

কয়েন উপরের দিকে ছুঁড়লেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। বাংলাদেশ অধিনায়ক ডাকলেন টেইলস, কিন্তু উঠলো হেডস। টস ভাগ্য সঙ্গী হলো না বাংলাদেশের। টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিলেন উইলিয়ামসন।

ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে ব্যাটিং ব্যর্থতায় পেতে হয় হারের তেতো স্বাদ। গত শুক্রবার পাকিস্তানের বিপক্ষে কোনোরকম লড়াই-ই করতে পারেনি বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষকে ১৬৭ রানে আটকে দিয়ে লিটন-আফিফরা হারে ২১ রানে।

ম্যাচের পর ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহানের কণ্ঠে ঝরে হতাশা। তার কথায় ফুটে ওঠে এখনও অনেক জায়গায় ঘাটতির বিষয়টি। বারবারই বলেন উন্নতি করার তাড়নার কথা।

ক্রাইস্টচার্চে রোববার আরও একবার সেই ঘাটতিগুলো পূরণের লক্ষ্য নিয়ে নিউ জিল্যান্ডের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। খেলা শুরু বাংলাদেশ সময় বেলা ১২টায়।

এমন উন্নতির কথা অনেক দিন ধরেই বলে আসছে বাংলাদেশ। ‘ইন্টেন্ট’ দেখানো এবং ‘ইম্প্যাক্ট’ রাখা নিয়ে এত চর্চার প্রতিফলন এখন পর্যন্ত দেখা যায়নি তাদের খেলায়। ফল নিয়ে না ভাবা দলটি চায় প্রক্রিয়া ঠিক রাখতে। কিন্তু সেখানেও তারা পারছে না নিজেদের কাজটা ঠিকঠাক করতে।