বাংলাদেশের সিনেমা মোটেও দেখি না -ববিতা

প্রকাশিত: ১১:০৯ পূর্বাহ্ণ, মঙ্গল, ১ জুন ২১

নিজস্ব প্রতিনিধি।।

বাংলা চলচ্চিত্রের সেরা অভিনেত্রীদের একজন চিত্রনায়িকা ববিতা। অভিনয় করেছেন ৩৫০ এরও বেশি সিনেমায়। দেশ-বিদেশে বড় বড় চলচ্চিত্র উৎসবে প্রশংসিত হয়েছে ববিতার সিনেমা। সিনেমা দিয়ে নিজেকে যেমন পরিচিতি করেছেন, তেমনি দেশকেও তুলে ধরেছেন। একাধিকবার পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। একসময়ের সাড়া জাগানো এই নায়িকা করোনার কারণে বন্দি জীবন পার করছেন। কেমন আছেন? ববিতা মানবজমিনকে বলেন, কেউ কি এখন খুব ভালো আছে? কেউ ভালো নেই। আমি তো দেড় বছর হয়ে গেলো বন্দি জীবনের মধ্যে রয়েছি। সাবধানে বাড়িতেই আছি।

নিজের মতো করে সময় কাটাচ্ছি। মোটেও বাইরে যাই না। বাড়িতে কাউকে ঢুকতেও দেই না। সম্পূর্ণ একা। আমার ছেলে বিদেশে থাকে। ভিসা জটিলতার কারণে তার কাছেও যেতে পারছি না। সব মিলিয়ে মন খারাপ। আপনার সময় কাটে কীভাবে? ববিতা বলেন, ইবাদত বন্দেগী, বাড়ির কাজকর্ম করি। এছাড়া সময় থাকলে বসে বসে পুরনো সিনেমা দেখি। আর্ট ফিল্ম দেখা হয় বিশেষ করে।

সত্যজিৎ রায়, অপর্ণা সেন, শ্যাম বেনেগালসহ বড় বড় নির্মাতাদের ছবি দেখি। ইংরেজী ছবিও দেখি। নেটফ্লিক্সে অনেক ভালো ভালো ছবি থাকে। তবে বাংলাদেশের সিনেমা মোটেও দেখি না। কারণ এখনকার কোনো সিনেমাই আমার ভালো লাগে না। আপনার কথা অনুযায়ী সিনেমার বর্তমান অবস্থা একবারেই নাজুক। এখান থেকে উত্তরনের উপায় কী বলে মনে হয় আপনার কাছে? ববিতা উত্তরে বলেন, অবস্থা খুব খারাপ।

এখন সিনেমা হচ্ছে না। সিনেমা হলে মোটেও লোক যাচ্ছে না। কোভিড যতদিন আছে বাংলাদেশে ততদিন সিনেমা নিয়ে কিছু ভাবা বোকামি। কিছুই হবে না। নতুন করে অনেক ছবির শুটিং হচ্ছে। হতে পারে শুটিং। কিন্তু ছবি তো চলতে হবে? আগের মতো সিনেমা হলে না গেলে টাকাও উঠে আসবে না। যে টাকাটা খরচ করছে সেটা তো উঠে আসতে হবে। শুধু শুধু সিনেমা বানালে তো হবে না।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.