বাংলাদেশের সাংবাদিকরা অপরিপক্ব : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক।।

সাংবাদিকদের উদ্দেশ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বাংলাদেশের সাংবাদিকরা সঠিকভাবে সংবাদ উপস্থাপন করতে জানেন না। তাদের অনেক দুর্বলতা আছে। তাদেরকে পরিপক্ব হতে হবে। আমার অনেক বক্তব্য ভুলভাবে গণমাধ্যমে ছেপেছেন তারা। বিডিনিউজ।

সম্প্রতি জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক অনুষ্ঠানে আব্দুল মোমেনের দেয়া বক্তব্য গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার প্রতিক্রিয়ায় গতকাল শনিবার তিনি গোপালগঞ্জে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, গত ২৬ তারিখ প্রেস ক্লাবে এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেই। ১৭টি গণমাধ্যম তা নিয়ে যে হেডলাইন করেছে, তার সাথে আমার বক্তব্যের কোনো ধরনের সম্পর্ক নাই। হেডলাইনগুলো বলেছে, আমেরিকা যুদ্ধবাজ, অমুক-তমুক, এমন কথা আমার মুখেও আসে নাই। গণমাধ্যমে ছাপা হয়েছে, আমি নাকি যুক্তরাষ্ট্রকে যুদ্ধবাজ বলেছি। প্রত্যেকটা গণমাধ্যম একটা মিথ্যা, বানোয়াট তথ্য দিলো। মনে হয়, আমাদের দেশে সাংবাদিকতা যারা করেন, তাদের পরিপক্বতা দরকার।

তিনি আরো বলেন, যে বক্তব্যের ধারে কাছেও আমি নেই, সে বক্তব্য কেন সাংবাদিকরা প্রকাশ করছেন? কোন উদ্দেশ্যে তারা এসব প্রচার করছেন? এমন বক্তব্য প্রকাশ হলে যুক্তরাষ্ট্র ভাববে, আমরা বোধয় তাদের শত্রু। এগুলো খুব দুঃখজনক।

এর আগেও পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন তার কয়েকটি বক্তব্য নিয়ে সমালোচনায় পড়েছিলেন। ‘ভারতকে বলেছি আওয়ামী লীগকে টিকিয়ে রাখতে হবে’, ‘আমরা সুখে আছি, বেহেস্তে আছি’ -এমন কিছু বক্তব্য দিয়ে দলের ভেতর ও বাইরে তুমুল সমালোচিত হন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন। সমালোচনার পর আব্দুল মোমেন বলেছিলেন, এরপর থেকে বক্তব্য দেয়ার ক্ষেত্রে সাবধান হবেন তিনি।

সাবেক রাষ্ট্রদূতদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব ফরমার বিসিএস (এফএ) অ্যাম্বাসেডরসের (এওফা) সদস্যদের নিয়ে গতকাল শনিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে যান মোমেন। সেখানেই সাংবাদিকদের সাথে তার কথা হয়। তার সাথে এ সময় উপস্থিত ছিলেন অ্যাম্বাসেডর-অ্যাট-লার্জ মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, অ্যাসোসিয়েশন অব ফরমার বিসিএস (এফএ) অ্যাম্বাসেডর্সের (এওফা) প্রেসিডেন্ট শমসের মবিন চৌধুরী, সেক্রেটারি জেনারেল আব্দুল্লাহ আল হাসান।