ফরমালিনের ক্ষতিকর প্রভাব ও প্রতিরোধের উপায়

নিউজ ডেস্ক।।

আসছে আমের মৌসুম। বাজারে এখন থেকেই বিভিন্ন ধরনের আম পাওয়া যাচ্ছে; কিন্তু সবাই আমরা একটা ভয়েই যেন আম কেনার সাহস করতে পারি না। সেটা হলো ফরমালিন। কিন্তু একটু চেষ্টা করলেই আমগুলোকে আমরা নিজেরাই ফরমালিন মুক্ত করতে পারি।

তাহলে চলুন জেনে নেই আমাদের শরীরের উপর ফরমালিনের ক্ষতিকারক প্রভাব এবং এ থেকে বাঁচার উপায়—

ফরমালিনের ক্ষতিকারক প্রভাব
ইকোসিস্টেম এবং মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।
নাকে জ্বালাপোড়া সৃষ্টি হওয়া।
শ্বাসকষ্ট হওয়া।
ত্বকে জ্বালাপোড়া সৃষ্টি হওয়া।
অনেক দিন ধরে ফরমালডিহাইডের সংস্পর্শে থাকলে শ্বেতরক্তকনিকা পরিবর্তিত হতে থাকে।
ব্রেন, নাক, ফুসফুস ইত্যাদি বিভিন্ন অঙ্গে ক্যান্সারের সৃষ্টি করতে পারে।
কিডনিতে বিভিন্ন রোগের সৃষ্টি করে।
গর্ভবতী মায়েদের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। এর কারণে গর্ভাবস্থায় রক্তক্ষরণ থেকে শুরু করে গর্ভপাতও হয়ে যেতে পারে।
অ্যালার্জি এবং অ্যাজমার উদ্রেক ঘটায়।
প্রজনন ক্ষমতা হ্রাস করে দেয়।
হজম প্রক্রিয়া ব্যাহত হয়।
এছাড়াও বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়।

খাবারকে ফরমালিন মুক্ত করার উপায়

এক বালতি গরম পানি নিন। পানি যত পরিমাণ নিবেন তার ১০ ভাগের ১ ভাগ লবণ পানিতে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবার বাজার থেকে যেকোনো খাবার কিনে এনে এতে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর সাধারণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ফরমালিনসহ অন্যান্য কেমিক্যালও চলে যাবে। এতে করে খাবার থেকে প্রায় ৯৫% কেমিক্যাল চলে যাবে। তবে বিভিন্ন খাবারের ক্ষেত্রে ভিজিয়ে রাখার সময়টি বিভিন্ন হয়। যেমন-

১) শাকসবজির ক্ষেত্রে ১০-১৫ মিনিট।
২) ফলের ক্ষেত্রে কমপক্ষে ১ ঘণ্টা।
৩) মাছ-মাংসের ক্ষেত্রে ১ ঘণ্টা।

এছাড়া পানিতে ভিনেগার মিশিয়ে তাতে খাবারটি ভিজিয়ে রেখেও ফরমালিন দূর করা সম্ভব