প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার প্রস্তুতি- প্রাথমিক বিজ্ঞান

প্রকাশিত: ১১:৫১ পূর্বাহ্ণ, শনি, ২৫ সেপ্টেম্বর ২১

বিজ্ঞান

হিমন এডওয়ার্ড গমেজ, সিনিয়র শিক্ষক

সেন্ট গ্রেগরী হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজ, ঢাকা

জীবনের জন্য পানি

১. বরফসহ পানির গ্লাসের বাইরের অংশ কেন ভিজে যায় তা ব্যাখ্যা করো।

উত্তর:বরফসহ পানির গ্লাসের বাইরের অংশ ভিজা থাকে। কারণ, গ্লাসে বরফের টুকরা রাখলে গ্লাসটি ঠাণ্ডা হয়। এতে গ্লাসের বাইরের চারিপাশের উপস্থিত জলীয়বাষ্প ঠাণ্ডা হয়ে যায়। ফলে জলীয়বাষ্প ঘনীভূত হয়ে পানিতে পরিণত হয়। এভাবে গ্লাসের বাহিরের জলীয়বাষ্প গ্লাসের গায়ে বিন্দু বিন্দু পানি হিসেবে জমা হয়। ফলে বরফসহ পানির গ্লাসের বাহিরের অংশ ভিজে যায়।

২. পানিচক্র ব্যাখ্যা করো।

উত্তর:যে প্রক্রিয়ায় পানি বিভিন্ন অবস্থায় পরিবর্তিত হয়ে ভূপৃষ্ঠ ও বায়ুমণ্ডলের সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে তাই পানিচক্র।

ব্যাখ্যা:পানি চক্রের মাধ্যমে সর্বদাই পানির অবস্থার পরিবর্তন ঘটে। সূর্যের তাপে সাগর ও নদীর পানি বাষ্পীভূত হয়ে জলীয় বাষ্পে পরিণত হয়। বাষ্পীভূত পানি উপরে উঠে ঠাণ্ডা ও ঘনীভূত হয়ে পানির বিন্দুতে পরিণত হয়। ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র পানির বিন্দু একত্রিত হয়ে মেঘ সৃষ্টি করে। এই মেঘের পানিকণা বড় হয়ে বৃষ্টিপাত হিসেবে আবার ভূপৃষ্ঠে ফিরে আসে। এভাবে ভূ-পৃষ্ঠের পানি থেকে জলীয় বাষ্প এবং জলীয় বাষ্প থেকে মেঘ, মেঘ থেকে বৃষ্টি হিসেবে পানি আবার ভূপৃষ্ঠে ফিরে আসে। এক উত্স হতে অন্য উেস পানির এরূপ চক্রাকার ঘূর্ণনই হলো পানিচক্র।

৩. জীবের কেন পানি প্রয়োজন ?

উত্তর:জীবের জীবন ধারণের জন্য পানি প্রয়োজন। পানি ছাড়া জীব তথা উদ্ভিদ ও প্রাণী বেঁচে থাকতে পারে না। উদ্ভিদ খাদ্য তৈরিতে পানি ব্যবহার করে। মাটি থেকে পুষ্টি উপাদান সংগ্রহ এবং শোষণে উদ্ভিদের পানি প্রয়োজন। এছাড়া প্রচণ্ড গরমে পানি উদ্ভিদদেহ শীতল করতে সাহায্য করে। অন্যদিকে প্রাণিদেহের বিভিন্ন অংশে পানি পুষ্টি উপাদান পরিবহন করে। এছাড়াও পুষ্টি উপাদান শোষণে, খাদ্য পরিপাকে এবং দেহের তাপমাত্রা স্বাভাবিক রাখতে পানি সাহায্য করে। এসব কারণেই জীবের জন্য পানি প্রয়োজন।

৪. বাতাসে পানি আছে তা আমরা কীভাবে ব্যাখ্যা করতে পারি।

উত্তর:বাতাসে পানি আছে তা আমরা নিচের পরীক্ষার সাহায্যে নির্ধারণ করতে পারি।

পরীক্ষা:একটি পরিষ্কার প্লাস্টিকের ব্যাগ বায়ু দ্বারা পূর্ণ করি এবং এর মুখ শক্ত করে বাঁধি। এবার ব্যাগটি কিছুক্ষণের জন্য বরফসহ পানির পাত্রে রাখি এবং কিছুক্ষণ পর সরিয়ে ফেলি।

পর্যবেক্ষণ:ব্যাগের ভিতরের অংশ ভালোভাবে লক্ষ্য করি। দেখা গেল ব্যাগের ভিতরের অংশে বিন্দু বিন্দু পানি জমেছে।

সিদ্ধান্ত:ব্যাগের ভিতরের বায়ুতে উপস্থিত জলীয় বাষ্প জমে পানি কণায় পরিণত হয়েছে।

উপরের পরীক্ষা থেকে বোঝা যায় বাতাসে পানি আছে।

৫. পুকুরের পানি থেকে আমরা কীভাবে নিরাপদ পানি পেতে পারি ?

উত্তর:পুকুরের পানি থেকে নিরাপদ পানি পাওয়ার উপায় নিচে দেওয়া হলো—

একটি কলসি বা পাত্রে পুকুরের পানি নিয়ে রেখে দেই। কিছুক্ষণ পর দেখা যাবে পাত্রের তলায় তলানি জমেছে। উপরের অংশের পানি পরিষ্কার হয়েছে।

এরপর এই পানি ২০ মিনিটের বেশি সময় ধরে ফুটাতে হবে। ফুটানোর পর এই পানি ছেঁকে নিলে আমরা জীবাণুমুক্ত নিরাপদ পানি পাব।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.