প্রাথমিকে ১০ বছর পর স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন

নিউজ ডেস্ক।।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে স্টুডেন্টস কাউন্সিল গঠনের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এ লক্ষ্যে আগামী ২ জুন সারা দেশের প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন হবে।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) রাতে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (সাধারণ প্রশাসন) মো. নজরুল ইসলামের সই করা অফিস আদেশ থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

অফিস আদেশে বলা হয়েছে, আগামী ১৪ থেকে ১৬ মে সহকারী উপজেলা/থানা শিক্ষা কর্মকর্তা এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষকদের সংশ্লিষ্ট বিষয়ে অবহিত করবেন। ১৭ থেকে ২১ মে বিদ্যালয় পর্যায়ে শিক্ষক, অভিভাবক ও ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে অবহিতকরণ সভা হবে। ২২ মে নিয়োগ করা হবে নির্বাচন কমিশনার। ২৩ মে ভোটার তালিকা প্রকাশ ও নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে।

আরও বলা হয়, ২৪ মে মনোনয়ন আহ্বান, ২৮ মে মনোনয়ন জমা, ২৯ মে মনোনয়ন বাছাই ও বৈধ প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করা হবে। ৩০ মে মনোনয়ন প্রত্যাহার এবং চূড়ান্ত প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করা হবে। ২ জুন সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ শেষে ফল ঘোষণা করা হবে।

২০১০ সালে সর্বপ্রথম স্টুডেনস কাউন্সিল নির্বাচন হয়। ওই বছর ১৯ জেলার ২০টি উপজেলার ১০০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সরাসরি নির্বাচনের মাধ্যমে স্টুডেন্টস কাউন্সিল গঠন করা হয়। এই স্টুডেন্টস কাউন্সিলের কার্যক্রম স্থানীয় জনসাধারণ, ছাত্রছাত্রী এবং শিক্ষকদের মাঝে বিপুল আগ্রহ ও উৎসাহ উদ্দীপনার সৃষ্টি করে। ২০১১ সালে সারা দেশে ৭৪১টি বিদ্যালয়ে সরাসরি নির্বাচনের মাধ্যমে স্টুডেন্টস কাউন্সিল গঠিত হয়। এর পর ২০১২ সালে সারা দেশে ১৩ হাজার ৫৮৩টি বিদ্যালয়ে স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন হয়।

২০১৩ সালে স্টুডেন্টস কাউন্সিলের কার্যক্রমকে বিস্তৃত করতে সব জেলা-উপজেলায় সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্টস কাউন্সিল গঠনের সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু, নানা জটিলতায় তা আর সম্ভব হয়নি।