প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ: তৃতীয় ধাপের ফল প্রকাশ

নিজস্ব প্রকিবেদক।।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪৫ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগের তৃতীয় ও শেষ ধাপের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়েছে। ৩২ জেলায় ৫৭ হাজার ৩৬৮জন প্রার্থীকে মৌখিক পরীক্ষার জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে। এরই মধ্যে পরীক্ষায় যেসব প্রার্থী উত্তীর্ণ হয়েছেন তাদের মুঠোফোনে টেলিটকের নম্বর থেকে এসএমএস যাওয়া শুরু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

এর আগে গত ৩ জুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগের তৃতীয় ধাপের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ৩২ জেলায় পরীক্ষার্থীরা তৃতীয় ধাপের পরীক্ষায় অংশ নেন। এর মধ্যে ১৮ জেলার সম্পূর্ণ, ১৪ জেলার আংশিক ফল প্রকাশ করলো ডিপিই।

১৮ জেলা হচ্ছে— জয়পুরহাট, বগুড়া, পাবনা, চুয়াডাঙ্গা, নড়াইল, মেহেরপুর, নারায়ণগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, শরীয়তপুর, কক্সবাজার, ঝালকাঠি, সিলেট, ভোলা, বরগুনা, ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর, নীলফামারী, পঞ্চগড়।

আংশিক পরীক্ষা হয়েছে ১৪ জেলায়। এর মধ্যে রয়েছে নওগাঁর আত্রাই, বদলগাছী, ধামুইরহাট, মহাদেবপুর ও মান্দা উপজেলা, নাটোরের নলডাঙ্গা, সদর ও সিংড়া উপজেলা, কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা, দৌলতপুর ও কুমারখালী উপজেলা, ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর, মহেশপুর ও শৈলকুপা উপজেলা, সাতক্ষীরার আশাশুনি, শ্যামনগর ও তালা উপজেলা, বাগেরহাটের সদর, চিতলমারী, ফকিরহাট ও রামপাল উপজেলা, কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী, চিলমারী, সদর ও নাগেশ্বরী উপজেলা, গাইবান্ধার সদর, গোবিন্দগঞ্জ ও পলাশবাড়ী উপেজেলা, জামালপুরের বকশীগঞ্জ, দেওয়ানগঞ্জ, ইসলামপুর ও সরিষাবাড়ী উপজেলা, রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি ও সদর উপজেলা, পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া, ইন্দুরকানী ও মঠবাড়িয়া উপজেলা, পটুয়াখালীর বাউফল, দশমিনা ও গলাচিপা উপজেলা, সুনামগঞ্জের ছাতক, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ, দিরাই ও ধর্মপাশা উপজেলা, হবিগঞ্জের বানিয়াচং, বাহুবল, চুনারুঘাট ও আজমিরীগঞ্জ উপজেলা।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, কোন প্রার্থী ভুল তথ্য প্রদান করলে বা তথ্য গোপন করলে তাদের প্রার্থীতা বাতিল হবে। প্রতিটি উপজেলা বা থানার জন্য কোন ধরনের অপেক্ষমান তালিকা প্রস্তুত করা হবেনা। মৌখিক পরীক্ষার তারিখ ও স্থান পরবর্তীতে জানিয়ে দেয়া হবে।