প্রশ্ন ফাঁসের সুযোগ নেই, গুজব ছড়ালে ব্যবস্থা : শিক্ষামন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক।।

চলতি বছর এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু হতে যাচ্ছে ১৫ সেপ্টেম্বর। এই পাবলিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের কোনো সুযোগ নেই বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেন, প্রশ্নফাঁসের বিষয়ে কেউ গুজব ছড়ালে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ বিষয়ে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী তৎপর রয়েছেন।

আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে নতুন পাঠ্যক্রমের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, পাবলিক পরীক্ষাটি সারা দেশে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে ইতিমধ্যে সার্বিক প্রস্তুতি শেষ করা হয়েছে। প্রতিবছরের মতো এ বছরও কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এর পরও কোচিং সেন্টার খোলা থাকার অভিযোগের বিষয়ে বলেন, এমন তথ্য পেলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অভিভাবকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, তারা যেন এ সময় শিক্ষার্থীদের কোচিংয়ে না পাঠান। শিক্ষার্থীরা না এলে কোচিং সেন্টার এমনিতেই বন্ধ হয়ে যাবে।

দীপু মনি বলেন, নতুন কারিকুলামের ধারাবাহিক ও সামষ্টিক মূল্যায়নের জন্য একটি অ্যাপস তৈরি করা হবে। অ্যাপসের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের বার্ষিক মূল্যায়ন করা হবে।

জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা-২০২১ নিয়ে অনলাইন প্রশিক্ষণ অ্যাপস উদ্বোধনকালে তিনি বলেন, বৈশ্বিক চাহিদার সঙ্গে মিল রেখে নতুন কারিকুলামের রূপরেখা তৈরি করা হয়েছে। প্রতিবছর ক্লাসভিত্তিক তা বাস্তবায়ন করা হবে।বর্তমানে যে পেশা রয়েছে তার ৬০ শতাংশ পরিবর্তন হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, মুখস্থনির্ভরতা কমিয়ে দক্ষতাভিত্তিক শিক্ষাক্রম চালু হচ্ছে। জিপিএ-৫-এর পরিবর্তে শিক্ষার্থীদের দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব আবু বকর ছিদ্দীক, কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব কামাল হোসেন এবং জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের চেয়ারম্যান ফরহাদুল ইসলাম।