প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি পেলেন দুই জেলার ১৬৭ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাঃ গোপালগঞ্জ ও কুড়িগ্রামের ১৬৭ জন শিক্ষক পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে গোপালগঞ্জের ৬৯ জন সহকারী শিক্ষক প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি পেয়েছেন। তারা সবাই গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার বিভিন্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত শিক্ষক। আর কুড়িগ্রামের তিন উপজেলার ৯৮ জন সহকারী শিক্ষককে প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে। পদোন্নতি পাওয়াদের মধ্যে জেলার রৌমারী উপজেলার ৪৪ জন, চিলমারী উপজেলার ৩০ জন এবং চররাজিবপুর উপজেলার ২৪ জন।

সোমবার (৬ নভেম্বর) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পৃথক আদেশে তাদের পদোন্নতির বিষয়টি জানানো হয়।

আদেশে বলা হয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ বিধিমালা, ২০১৯-এর বিধি ৫ (১) অনুযায়ী বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার ৬৯ সহকারী শিক্ষককে ২০১৫ সালের গ্রেড-১১-এর (১২৫০০-৩০২৩০ বেতনক্রমে) ২ নং অনুচ্ছেদে বর্ণিত শর্ত সাপেক্ষে পদোন্নতির মাধ্যমে নিয়োগ দেওয়া হলো।

আদেশে আরও বলা হয়, পদোন্নতি পাওয়া শিক্ষকদের ১২ নভেম্বরের মধ্যে গোপালগঞ্জের জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে যোগদান করতে হবে। যোগদানে ব্যর্থ হলে তিনি পদোন্নতিযোগ্য নন বলে বিবেচিত হবেন। একই সঙ্গে পদোন্নতির আদেশ বাতিল হবে। যোগ দেওয়ার দুই কার্যদিবসের মধ্যে এসব শিক্ষককে পদায়ন করা হবে। চলতি দায়িত্ব বা ভারপ্রাপ্ত হিসেবে পদোন্নতি পাওয়া শিক্ষকদের কর্মরত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পদেই পদায়ন করতে হবে।

অপর আদেশে বলা হয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ বিধিমালা, ২০১৯-এর বিধি ৫(১) অনুযায়ী বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে কুড়িগ্রামের রৌমারী, চিলমারী ও চররাজিবপুর উপজেলার ৯৮ জন সহকারী শিক্ষককে ২০১৫ সালের গ্রেড-১১-এর ২নং অনুচ্ছেদে বর্ণিত শর্তসাপেক্ষে পদোন্নতির মাধ্যমে নিয়োগ দেওয়া হলো।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/এএইচএম/০৬/১১/২০২৩ 

দেশ বিদেশের শিক্ষা, পড়ালেখা, ক্যারিয়ার সম্পর্কিত সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম, ছবি, ভিডিও প্রতিবেদন সবার আগে দেখতে চোখ রাখুন শিক্ষাবার্তায়