পোশাক রফতানিতে ইউরোপে ২য় বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক।।

বিশ্বজুড়েই চলছে অর্থনৈতিক সংকট। প্রায় সবদেশই মূল্যস্ফীতির ধাক্কায় নাকাল। তবে সংকটের মধ্যেও আশার কথা হচ্ছে, উন্নত দেশগুলো বাংলাদেশ থেকে আগের চেয়ে বেশি পোশাক আমদানি করছে। তৈরি পোশাক রপ্তানিতে ইউরোপের বাজারে দ্বিতীয় এবং যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে তৃতীয় অবস্থান ধরে রেখেছে বাংলাদেশ।

যুক্তরাষ্ট্রের অফিসিয়াল সোর্স অফিস অব টেক্সটাইলস অ্যান্ড অ্যাপারেল (অটেক্সা) ও ইউরোপীয় পরিসংখ্যান সংস্থা ইউরোস্ট্যাটের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের প্রথম ৯ মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ পোশাক রপ্তানি করেছে আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি। ইউরোস্ট্যাটের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ২০২১ সালের জানুয়ারি-সেপ্টেম্বরের তুলনায় চলতি বছরের প্রথম ৯ মাসে ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত (ইইউ) দেশগুলোতে বাংলাদেশের পোশাক রপ্তানি ৪৩ দশমিক ২১ শতাংশ বেড়ে ১৭ দশমিক ৫৬ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে। ২২ দশমিক ৫৬ শতাংশ হিস্যা নিয়ে ইউরোপে পোশাক রপ্তানিতে বাংলাদেশ দ্বিতীয়। আর চীন ২৯ দশমিক ৪ শতাংশ হিস্যা নিয়ে এ অঞ্চলে শীর্ষে রয়েছে।

ইইউ ২০২২ সালের প্রথম ৯ মাসে চীন থেকে ২২ দশমিক ৫৯ বিলিয়ন ডলার মূল্যের পোশাক আমদানি করেছে, যেখানে বছরওয়ারি প্রবৃদ্ধি ২৫ দশমিক ১৯ শতাংশ। এ সময় তুরস্ক থেকে ইইউ ৯ দশমিক ১৯ বিলিয়ন ডলারের পণ্য আমদানি করেছে। দেশটির বছরওয়ারি প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১৪ দশমিক ৮৬ শতাংশ। তুরস্ক ইইউর তৃতীয় বৃহত্তম পোশাকের বাজার। এ ছাড়া ভারত থেকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের আমদানি বেড়েছে ১৫ দশমিক ৮৫ শতাংশ।
ইউরোপীয় ইউনিয়নের শীর্ষ ১০ পোশাক সরবরাহকারীর মধ্যে বাংলাদেশ সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে। উচ্চ প্রবৃদ্ধিসহ অন্য দেশগুলো হলো কম্বোডিয়া ৪১ দশমিক ৮ শতাংশ, ইন্দোনেশিয়া ৩৩ দশমিক ৪৬ শতাংশ এবং পাকিস্তান ৩০ দশমিক ৭৬ শতাংশ।