নৌকা ৪৬,ধানের শীষ ৪,অন্যন্য ৯

প্রকাশিত: ১০:১২ অপরাহ্ণ, বুধ, ২০ জানুয়ারি ২১

নিউজ ডেস্ক ||

দ্বিতীয় দফায় শনিবার অনুষ্ঠিত ৬০ পৌরসভা নির্বাচনে ৫৯টির বেসরকারি ফলাফল পাওয়া গেছে। এতে মেয়র পদে ৪৬টিতে আওয়ামী লীগ, ৪টিতে বিএনপি, একটিতে জাসদ, একটিতে জাতীয় পার্টি ও ৭টিতে বিদ্রোহী ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন। নির্বাচিত স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মধ্যে পাঁচজন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ও একজন বিএনপির বিদ্রোহী। দুটি পৌরসভায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী। একটি পৌরসভা আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে ডেস্ক রিপোর্ট:

শ্রীপুর (গাজীপুর) :

টানা চতুর্থবার বিজয়ের মধ্য দিয়ে রেকর্ড গড়েছেন গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনিছুর রহমান। একই সঙ্গে টানা ৬ বার নির্বাচিত হয়ে এবারও পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হলেন আব্দুল সাহিদ সরকার। ১৬ জানুয়ারি ১৩ হাজার ৩৯০ ভোট বেশি পেয়ে টানা চতুর্থবারের মতো মেয়র নির্বাচিত হলেন আনিছুর রহমান। ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলামের (পাঞ্জাবি প্রতীক) চেয়ে ৮৫০ ভোট বেশি পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন উটপাখি প্রতীক নিয়ে আব্দুল সাহিদ সরকার। তার প্রাপ্ত ভোট ১৫৪১। ৯টি ওয়ার্ডে বেসরকারিভাবে বিজয়ী কাউন্সিলররা হলেন, ১নং ওয়ার্ডে দারা মন্ডল, ২নং ওয়ার্ডে মাসুদ প্রধান, ৩নং ওয়ার্ডে আ. সাহিদ সরকার, ৪নং ওয়ার্ডে কামরুল মন্ডল, ৫নং ওয়ার্ডে রমিজ উদ্দিন, ৬নং ওয়ার্ডে হাজী কামাল হোসেন, ৭নং ওয়ার্ডে হাবিবুলস্নাহ, ৮নং ওয়ার্ডে আলী আসগর, ৯নং ওয়ার্ডে আমজাদ। এছাড়াও বিজয়ী সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর হলেন, ১, ২, ৩ ওয়ার্ডে নাজমা বেগম, ৪, ৫, ৬ ওয়ার্ডে বুলবুলি ও ৭, ৮, ৯নং ওয়ার্ডে আফরোজা বেগম।

সিরাজগঞ্জ :

সিরাজগঞ্জের ৫টি পৌরসভা নির্বাচনের বেসরকারি ফলাফলে চারটিতে আওয়ামী লীগ ও একটিতে স্বতন্ত্রপ্রার্থী জয়ী হয়েছেন। বেসরকারি ফলাফলে সিরাজগঞ্জ সদর পৌরসভায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী বর্তমান মেয়র সৈয়দ আব্দুর রউফ মুক্তা নৌকা প্রতীকে ৬৮ হাজার ৩৪৮ ভোট পেয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো বিজয়ী হয়েছেন। রায়গঞ্জ পৌরসভায় বর্তমান মেয়র আবদুলস্নাহ আল পাঠান নৌকা প্রতীকে ৮ হাজার ৯২০ ভোট পেয়ে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। উলস্নাপাড়ায় আওয়ামী লীগের বর্তমান মেয়র এস.এম. নজরুল ইসলাম নৌকা প্রতীকে ২৪ হাজার ৫০৯ ভোট পেয়ে পুনরায় বিজয়ী হয়েছেন। বেলকুচিতে স্বতন্ত্রপ্রার্থী সাজ্জাদুল হক রেজা নারিকেল গাছ প্রতীকে ১৮ হাজার ৩৮৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়াও কাজিপুরে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী আব্দুল হান্নান তালুকদার।

শেরপুর (বগুড়া) :

বগুড়ার শেরপুর পৌরসভা নির্বাচনে ৮ হাজার ৭৬৯ ভোট পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্রপ্রার্থী জানে আলম খোকা। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান মেয়র ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নৌকা প্রতীকের বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাত্তার পান ৪ হাজার ৬৮১ ভোট।

নওগাঁ :

নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার নজিপুর পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে রেজাউল কবির চৌধুরী ৭ হাজার ৬৮৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকে আনোয়ার হোসেন ৫ হাজার ১৫০ ভোট পেয়েছেন।

ধর্মপাশা (সুনামগঞ্জ) :

সুনামগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নাদের বখত বিশাল ভোটের ব্যবধানে দ্বিতীয়বারের মতো বিজয়ী হয়েছেন। তিনি ২১ হাজার ৬৮৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী মোর্শেদ আলম ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে ৫ হাজার ৮৭০ ভোট পেয়েছেন। কাউন্সিলর পদে যারা বিজয়ী হয়েছেন তারা হলেন, ১নং ওয়ার্ডে আবুল হাসনাত মোহাম্মদ কাউছার, ২নং ইয়াসিন নুর, ৩নং মোশারফ হোসেন, ৪নং চঞ্চল কুমার লৌহ, ৫নং গোলাম সাবেরীন সাবু, ৬নং আবাবিল নুর, ৭নং আহসান জামিল আনাছ, ৯নং গোলাম আহমদ, ৮নং ওয়ার্ডে আহমেদ নুর ও শফিক মিয়ার মধ্যে ভোট গণনা নিয়ে অভিযোগ থাকায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ফলাফল জানা যায়নি।

মহম্মদপুর (মাগুরা) :

মাগুরা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী খুরশিদ হায়দার টুটুল জয়ী হয়েছেন। শনিবার অনুষ্ঠিত ওই নির্বাচনে তিনি দ্বিতীয়বারের মতো মেয়র পদে ৩৯ হাজার ৪৬৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির দলীয় প্রার্থী ইকবাল আখতার কাফুর (ধানের শীষ) পেয়েছেন ৬ হাজার ৭৩ ভোট।

মাধবপুর (হবিগঞ্জ) :

হবিগঞ্জের মাধবপুরে ১ম বার বিএনপি মনোনীত মেয়রপ্রার্থী হাবিবুর রহমান মানিক ধানের শীষ প্রতীকে ৫০৩১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) নারিকেল গাছ প্রতীকে পেয়েছেন ৪১৮৫ ভোট। সাধারণ কাউন্সিলর পদে বিজয়ী হয়েছেন ১নং ওয়ার্ডে আফজাল মিয়া, ২নং ওয়ার্ডে আব্দুল হাকিম, ৩নং ওয়ার্ডে মো. বাবুল হোসেন, ৪নং ওয়ার্ডে সামসুল আলম পাঠান, ৫নং ওয়ার্ডে মোহাম্মদ মোবারক উলস্নাহ, ৬নং ওয়ার্ডে বিশ্বজিত চন্দ্র দাস, ৭নং ওয়ার্ডে শেখ জহিরুল ইসলাম, ৮নং ওয়ার্ডে বকুল চন্দ্র ঋষি, ৯নং ওয়ার্ডে মো. দুলাল খাঁ। মহিলা কাউন্সিলর ১নং ওয়ার্ডে মোছা. সাহা বানু, ২নং ওয়ার্ডে ইশরাত জাহান ডলি, ৩নং ওয়ার্ডে স্বপ্না পাল।

নাটোর :

নাটোরের গোপালপুর পৌরসভায় প্রথমবারের মতো ছয় হাজার ৫৭৮ ভোট পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হলেন রোকসানা মোর্ত্তজা লিলি। এদিকে মেয়র পদে নবীগঞ্জ পৌরসভায় ছাবির আহমেদ চৌধুরীকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছে।

কুমারখালী (কুষ্টিয়া) :

কুষ্টিয়ার কুমারখালী পৌরসভায় ১০ হাজার ১১০ ভোট পেয়ে পুনরায় মেয়র নির্বাচিত হলেন সামছুজ্জামান অরুন। সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলয় নির্বাচিত হয়েছেন- ১নং ওয়ার্ডে তানিয়া খাতুন, ২নং ওয়ার্ডে মোছা. তহমিনা খাতুন, ৩নং ওয়ার্ডে মোছা. ময়না খাতুন। সাধারণ কাউন্সিল পদে ১নং ওয়ার্ডে এস এম শাহিনুর রহমান, ২নং ওয়ার্ডে মাহবুবুল আলম বাবু, ৩নং ওয়ার্ডে হারুন অর রশিদ হারুন, ৪নং ওয়ার্ডে ফরিদ ইকবাল খান, ৫নং ওয়ার্ডে এস এম রফিকুল ইসলাম, ৬নং ওয়ার্ডে মো. জুলফিকার আলী হিরো, ৭নং ওয়ার্ডে আকামুদ্দিন আকাই শেখ, ৮নং ওয়ার্ডে মো. তুহিন শেখ, ৯নং ওয়ার্ডে মিজানুর রহমান মিলন।

কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) :

নেত্রকোনার কেন্দুয়া পৌরসভা নির্বাচনে দ্বিতীয়বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন আসাদুল হক ভূঞা। রোববার বিকালে কেন্দুয়া পৌরসদরে নৌকা মার্কার স্স্নোগানে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের কয়েকশ নেতাকর্মী আনন্দ মিছিলে অংশগ্রহণ করেন।

ফুলবাড়ীয়া(ময়মনসিংহ):

ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া পৌরসভা নির্বাচনে টানা তৃতীয়বারের মতো নৌকা প্রতীক নিয়ে ৫ হাজার ৬৩৬ ভোট পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. গোলাম কিবরিয়া। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মো. গোলাম মোস্তফা জগ প্রতীকে পেয়েছেন ৪ হাজার ৪২৮ ভোট।

টাঙ্গাইল ও ধনবাড়ী :

টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী (স্বতন্ত্র) মনিরুজ্জামান বকল নারকেল গাছ প্রতীকে ৮ হাজার ৯৬৩ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। নির্বাচনে চারজন মেয়রপ্রার্থী, ৯টি ওয়ার্ডে ২৯ জন কাউন্সিলর ও ৩টি সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে ১৩ জন নারী কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

ছাতক (সুনামগঞ্জ) :

সুনামগঞ্জের ছাতক পৌরসভায় ১২ হাজার ৮২৩ ভোট পেয়ে চতুর্থ বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আবুল কালাম চৌধুরী। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বিএনপির রাশিদা আহমদ ন্যান্সি পেয়েছেন সাত হাজার ৯০৮ ভোট। কাউন্সিলর পদে নাজিমুল হক, আফরোজ মিয়া, লিয়াকত আলী, রশিদ আহমদ খসরু, ইরাজ মিয়া, জসিম উদ্দিন সুমেন, তাপস চৌধুরী, শফিকুল ইসলাম ও ছালেক মিয়া নির্বাচিত হন। সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে নূরেছা বেগম, তাছলিমা জান্নাত কাকলী ও রত্না মালাকার নির্বাচিত হয়েছেন।

বিরামপুর (দিনাজপুর) :

দিনাজপুরের বিরামপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত অধ্যক্ষ মো. আক্কাস আলী ১৫ হাজার ৩৬০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্রপ্রার্থী অ্যাডভোকেট নূরুজ্জামান সরকার ৮ হাজার ৬৮৬ ভোট পেয়েছেন। সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন বুলবুলি বেগম, আঙ্গুরা পারভীন ও নাজনিন আক্তার। সাধারণ কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন মো. আব্দুল মান্নান, নুর আলম, মো. মোজাম্মেল হক, মো. মোজাফ্‌ফর রহমান, মো. ইসমাইল হোসেন, হুমায়ন কবির মিলন, মোশারফ হোসেন, মো. আব্দুল আজাদ বকুল ও নুর আলম।

পত্নীতলা (নওগাঁ) :

নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার সদর নজিপুর পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী রেজাউল কবির চৌধুরী বাবু বিএনপির আনোয়ার হোসেনকে ২ হাজার ৫৩৫ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে পুনরায় মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। কাউন্সিলর পদে মোজাহেদুল ইসলাম, অরুণ কুমার পাল, আব্দুল মজিদ, যুগল চন্দ্র দেবনাথ, সুদর্শন চন্দ্র সাহা, আপেল মাহমুদ, মোস্তফা কিবরিয়া, সূর্য কান্ত সরকার ও মিজানুর রহমান মিতু নির্বাচিত হন।

এছাড়া সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে ফারহানা বেগম, শাহানাজ বেগম এবং ফারজানা খাতুন নির্বাচিত হয়েছেন।

পাবনা :

দ্বিতীয় ধাপের পৌরসভা নির্বাচনে পাবনার ৪ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ৪ মেয়র প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। তন্মধ্যে একজন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।

বেসরকারি ফলাফলে নির্বাচিত মেয়ররা হলেন; পাবনার ঈশ্বরদী পৌরসভায় আওয়ামী লীগের ইসাহক আলী মালিথা পেয়েছেন ২৮ হাজার ৫৯২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী রফিকুল ইসলাম নয়ন। তিনি পেয়েছেন ২১৭০ ভোট।

ফরিদপুর পৌরসভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম প্রার্থী বর্তমান মেয়র খ ম কামরুজ্জামান মাজেদ পেয়েছেন ৪৯৯৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির এনামুল হক পেয়েছেন ৩৫৭৯ ভোট। সাঁথিয়া পৌরসভায় আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী মাহবুবুল আলম বাচ্চু পেয়েছেন ১৬ হাজার ৩৮৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির সাইফুল ইসলাম পেয়েছেন ৫ হাজার ৭০ ভোট।

এদিকে ভাঙ্গুড়া পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় বর্তমান মেয়র আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী গোলাম হাসনায়েন রাসেল বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র নির্বাচিত ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.