নিয়মিত অফিস না করলে চিকিৎসকদের বেতন বন্ধ

নিউজ ডেস্ক।।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) কর্মরত চিকিৎসক-নার্সসহ সব পর্যায়ের কর্মীদের দায়িত্ব পালনে সতর্কতা জারি করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। একইসাথে নিয়মিত অফিস না করলে বেতন বন্ধেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বৃস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) শহীদ ডা. মিল্টন হলে ডিন ও বিভাগীয় চেয়ারম্যানদের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা, চিকিৎসা সেবাসহ বিভিন্ন বিষয়ে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ এই নির্দেশনার কথা জানান।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে সবাইকে নিজ নিজ দায়িত্ব কর্তব্য সঠিকভাবে পালন করতে হবে। দায়িত্ব কর্তব্য পালনে অবহেলা করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। যদি কেউ নিয়মিত অফিস করছে না এমন প্রমাণ পাওয়া যায়, তার বেতন বন্ধ করে দেওয়া হবে। তাই সবাইকে যথাসময়ে যথাযথভাবে দায়িত্ব কর্তব্য পালনের নির্দেশ দিচ্ছি।

এসময় শারফুদ্দিন আহমেদ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা, চিকিৎসাসেবা ও গবেষণা কার্যক্রমকে এগিয়ে নিতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেন। তিনি তার বক্তব্যে দেশের প্রথম সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালের উদ্বোধন করায় এবং হাসপাতালটি চালু করতে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া ও সহযোগিতা করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এছাড়া কুড়িগ্রামে জন্ম নেওয়া মেরুদণ্ড জোড়া লাগানো দুই শিশু আট মাস ১৩ দিন বয়সী নুহা ও নাবাকে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে আলাদা করার চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করার দায়িত্ব নেওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান বিএসএমএমইউ উপাচার্য।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, ডিন অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন, ডিন অধ্যাপক ডা. দেবব্রত বনিক, ডিন অধ্যাপক ডা. মাসুদা বেগম, ডিন অধ্যাপক ডা. শিরিন তরফদার, ডিন অধ্যাপক ডা. শাহীন আকতার, প্রক্টর অধ্যাপক ডা. মো. হাবিবুর রহমান দুলাল, রেজিস্ট্রার ডা. স্বপন কুমার তপাদার, পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী, হল প্রোভোস্ট অধ্যাপক ডা. এসএম মোস্তফা জামান, কার্ডিওলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. একেএম ফজলুর রহমান প্রমুখসহ বিভিন্ন অনুষদের ডিন ও বিভাগীয় চেয়ারম্যানরা।