নিপা ভাইরাসে প্রাথমিক শিক্ষার্থীর মৃত্যু

শিক্ষাবার্তা ডেস্কঃ পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার সাহাপুর ইউনিয়নের দীঘা গ্রামে সোয়াত (৭) নামে এক শিশু মৃত্যু বরণ করেছে। সে দীঘা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর মেধাবী ছাত্র এবং একই গ্রামের সামিউলের ছেলে।

সোমবার সকালে  রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। রামেক হাসপাতালের আইসিইউ প্রধান ডা. আবু হেনা মোস্তফা কামাল এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, গত ২০ জানুয়ারি’২৩ সোয়াতের নানা রজব আলী নিজের লাগানো খেজুর গাছের রস মেয়ে,জামাই ও নাতির জন্য নিয়ে আসে। আনন্দে উৎফুল্ল হয়ে নানার নিজের হাতে নিয়ে আসা খেজুরের রস খেয়ে অসুস্থ হয়ে পরে শিশু সোয়াত।

তাকে সঙ্গে সঙ্গে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হলে পরীক্ষা নীরিক্ষার পর নিপা ভাইরাসের সিমটম দেখতে পেয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ ২৩ জানুয়ারি’২৩ সকালে তার মৃত্যু ঘটে।

পাবনা জেলায় নিপা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এটাই প্রথম মৃত্যু বলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন।

এদিকে দীঘা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর মেধাবী ছাত্র সোয়াতের অকাল মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।