নন-ক্যাডারের পদসংখ্যা ঠিক করল জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

৪০তম বিসিএসে সবচেয়ে বেশি পদ রেখে চলমান চারটি বিসিএসের নন-ক্যাডারের পদ সংখ্যা নির্দিষ্ট করে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনে (পিএসসি) চিঠি পাঠিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

সোমবার (৭ নভেম্বর) মন্ত্রণালয়ের নবনিয়োগ শাখার ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ইতোমধ্যেই পিএসসি থেকেও জনপ্রশাসনের শূন্য পদের তালিকা পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন ওই কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, নিয়ম অনুযায়ী কোন বিসিএসে কত পদ বরাদ্দ, তা নির্দিষ্ট করে দিতে পিএসসি মন্ত্রণালয়ে একটি চিঠি দিয়েছিল, তার জবাব দেওয়া হয়েছে। সেই চিঠিতে ৪০, ৪১, ৪৩ ও ৪৪ বিসিএসের নন-ক্যাডারের জন্য কোনটির কত পদ, তা নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। চাহিদার কয়েকদিন আগেই চিঠি পিএসসিতে পাঠানো হয়েছে। সেখানে পদ নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে।

মন্ত্রণালয়ের ওই কর্মকর্তা আরও জানিয়েছেন, ৪০তম বিসিএসের নন-ক্যাডারে থাকা প্রার্থীদের জন্য সবচেয়ে বেশি পদ রাখা হয়েছে। তবে সরকার চাইলে অন্য বিসিএসের পদ বাড়াতে পারে। সেই সুযোগ রেখেই কাজ চলছে।

সবশেষ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এখন থেকে নতুন বিসিএসের বিজ্ঞপ্তিতে ক্যাডার পদের পাশাপাশি নন-ক্যাডার পদের সংখ্যাও উল্লেখ থাকবে। তবে চলমান ৪০, ৪১, ৪৩ ও ৪৪তম বিসিএসের ক্ষেত্রে কোন বিসিএসের সময় কোন শূন্য পদের চাহিদা এসেছে, তা পর্যালোচনা করে মেধার ভিত্তিতে নন-ক্যাডার পদে নিয়োগের সুপারিশ করা হবে।

উল্লেখ্য, গতকাল রোববারও (৬ নভেম্বর) ৬ দফা দাবিতে পিএসসির সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন বিসিএস নন-ক্যাডার প্রার্থীরা। ওই সময় তারা ৪০তম বিসিএস নন-ক্যাডারদের উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বঞ্চিত করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেছিলেন। এর একদিনের মাথায় ৪০তম বিসিএসে সবচেয়ে বেশি পদ রেখে চলমান চারটি বিসিএসের নন-ক্যাডারের পদ সংখ্যা নির্দিষ্ট করল জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।