দেশের কারিগরি শিক্ষাব্যবস্থার উন্নয়ন প্রয়োজন : শিক্ষা উপমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক।।

দেশের কারিগরি শিক্ষাব্যবস্থার আরো উন্নয়ন করা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। তিনি আজ রাজধানীর আগারগাঁও পর্যটন ভবনে এসএমই ফাউন্ডেশন ও জার্মান উন্নয়ন সংস্থা এফইএস, বাংলাদেশের যৌথ আয়োজনে ‘বাংলাদেশের কারিগরি শিক্ষাব্যবস্থার উন্নয়ন : জার্মানির অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা’ শীর্ষক পলিসি পেপার উপস্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

উপমন্ত্রী বলেন, মানসম্মত কারিগরি শিক্ষা নিশ্চিত করতে ইতোমধ্যে কারিকুলাম পরিবর্তন, শিল্পের চাহিদা অনুসারে কার্যকর ও বিষয়ভিত্তিক কোর্সের সংখ্যা বাড়ানোসহ নানা উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, কারিগরি খাতে শিক্ষক-কর্মচারীর শূন্য পদ পূরণ করে ব্যাপক সংখ্যায় নতুন প্রতিষ্ঠান স্থাপন করার কাজ এগিয়ে চলেছে। মানসম্মত কারিগরি শিক্ষা নিশ্চিত করা সরকারের অন্যতম অগ্রাধিকার বলেও জানান শিক্ষা উপমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মো. হেলাল উদ্দিন এনডিসি বলেন, বর্তমানে ৬৪টি জেলায় সরকারের কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে। সরকার প্রথম ধাপে ১০০টি উপজেলায় এবং দ্বিতীয় ধাপে ৩২৯টি উপজেলায় তা সম্প্রসারণের উদ্যোগ নিয়েছে। তবে বিদ্যমান সব কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মান বজায় রাখতে প্রতিষ্ঠানগুলোকে এ, বি ও সি ক্যাটাগরিতে রেটিং করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন অধ্যাপক ড. মো. মাসুদুর রহমান বলেন, দেশে প্রায় সাড়ে ১০ হাজার কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থাকলেও শিল্প মালিকদের চাহিদা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কারিকুলামের মধ্যে দূরত্ব ঘুচিয়ে বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষণ, ইন্টার্নশিপ ও ব্যাবহারিক জ্ঞান বাড়ানো প্রয়োজন।