দুই শিক্ষককে সরিয়ে বসলেন ছাত্রলীগ সভাপতি

ঢাকাঃ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) নবনির্মিত ছয়টি হল ও একটি গবেষণাকেন্দ্রের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দুজন শিক্ষককে উঠিয়ে দিয়ে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে বসানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল মঙ্গলবার সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে এসব স্থাপনার উদ্বোধন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান অডিটরিয়ামে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যুক্ত হন উপাচার্য, উপ-উপাচার্য, কোষাধ্যক্ষ, সিনেট ও সিন্ডিকেট সদস্য, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, হল প্রাধ্যক্ষরা, শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

অনুষ্ঠান শুরুর ২৪ মিনিট পর ২০ জন নেতাকর্মী নিয়ে অডিটরিয়ামে উপস্থিত হন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান লিটন। ততক্ষণে অডিটরিয়াম ভবন অতিথিতে পূর্ণ হয়ে যায়। পরিপূর্ণ হলরুমে জায়গা না পাওয়ায় রেগে যান লিটন। তাঁদের শান্ত করতে প্রক্টর আ স ম ফিরোজ-উল-হাসান উপস্থিত হন।

প্রক্টর ও সহকারী প্রক্টরের সঙ্গে কথা-কাটাকাটি হলে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে প্রক্টর তাঁদের নিয়ে অডিটরিয়ামের বাইরে যান। এ সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা স্লোগান দিতে শুরু করেন। অডিটরিয়ামের বাইরে প্রক্টরের সঙ্গে আরেক দফা বাগবিতণ্ডায় জড়ান বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও তাঁর অনুসারীরা।

সহসভাপতি পদধারী একজন অডিটরিয়াম ভবনে তালা মারার হুমকি দেন। পরে ছাত্রনেতাদের ষষ্ঠ ও সপ্তম সারির আসনে বসানো হয়। তৃতীয় সারির ওই আসনে সোহেল ও হাবিবুরকে বসানো হয়।

প্রধানমন্ত্রীর প্রগ্রামে ছাত্রলীগের এমন আচরণকে ‘অশোভন’ ও শিক্ষকদের জন্য ‘লজ্জাজনক’ বলে মন্তব্য করেন উপস্থিত শিক্ষকরা।

এ ব্যাপারে জানতে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তারা সাড়া দেননি।

প্রক্টর আ স ম ফিরোজ-উল-হাসান বলেন, ছাত্রলীগকে আগে আসতে বলেছিলাম। আগে এলে এ ঘটনা ঘটত না। সব ছাত্রলীগের নেতাকর্মী দাবি করেছিলেন, স্ক্রিনে যাতে সভাপতি-সেক্রেটারিকে দেখা যায়, সেই ব্যবস্থা করতে হবে। দ্বিতীয় অথবা তৃতীয় সারিতে বসতে দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/এএইচএম/১৫/১১/২০২৩ 

দেশ বিদেশের শিক্ষা, পড়ালেখা, ক্যারিয়ার সম্পর্কিত সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম, ছবি, ভিডিও প্রতিবেদন সবার আগে দেখতে চোখ রাখুন শিক্ষাবার্তায়