তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার যোগ্যদের তালিকা প্রকাশ

প্রকাশিত: ৩:০৮ অপরাহ্ণ, শুক্র, ৪ জুন ২১

নিউজ ডেস্কঃ

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট), খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট) প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিতব্য সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার যোগ্যদের তালিকা প্রকাশিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩ জুন) তালিকাটি https://www.admissionckruet.ac.bd/ ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়। মোট ২৫ হাজার ৬৪৭ জন পরীক্ষার্থী এবার তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (চুয়েট-কুয়েট-রুয়েট) ভর্তির জন্য লড়বে।
ক বিভাগে (ইঞ্জিনিয়ারিং, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ) ২২ হাজার ৬১০ ও খ বিভাগে (ইঞ্জিনিয়ারিং, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা এবং স্থাপত্য বিভাগ) ৩ হাজার ৩৭জন পরীক্ষার্থী রয়েছে। মোট আসন ৩ হাজার ২০১টি। তালিকায় শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্রও প্রকাশ করা হয়েছে।

তিন প্রকৌশল সমন্বিত ভর্তি কমিটির সদস্য সচিব ও চুয়েটের পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. মইনুল ইসলাম জানান, শিক্ষার্থীদের পছন্দক্রম অনুসারে এই কেন্দ্র নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। বেশিরভাগ শিক্ষার্থীই তাদের ১ম পছন্দক্রম হিসেবে যে কেন্দ্র দিয়েছিল সেখানেই পরীক্ষা দিতে পারছে।
প্রায় ২১ হাজার শিক্ষার্থী তাদের দেওয়া ১ম পছন্দক্রমের কেন্দ্রেই পরীক্ষা দিতে পারছে। অবশিষ্ট শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে ২য় পছন্দক্রম এবং অল্প সংখ্যক শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে ৩য় পছন্দক্রম অনুসারে কেন্দ্র নির্ধারণ করা হয়েছে।
ভেন্যু নির্ধারণে পছন্দক্রম কীভাবে সমন্বয় করা হলো জানতে চাইলে তিনি জানান, ভেন্যু নির্ধারণের পছন্দক্রমে শিক্ষার্থীদের বোর্ড থেকে প্রাপ্ত নম্বরকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, এবার চুয়েট কেন্দ্রে ৮ হাজার ৫০০ জন (ক বিভাগে ৭৪৫৫, খ বিভাগে ১০৪৫) পরীক্ষার্থী পরীক্ষা দিবে। এছাড়া কুয়েট কেন্দ্রে ৭ হাজার ৯৪৭ জন (ক বিভাগে ৬ হাজার ৯৬৩, খ বিভাগে ৯৮৪) এবং রুয়েট কেন্দ্রে ৯ হাজার ২০০( ক বিভাগ ৮১৯২, খ ১০০৮) পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। আমরা আশা করছি এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের বিড়ম্বনায় পড়তে হবে না।
কোভিড পরিস্থিতির কারণে প্রতিটি কেন্দ্রের মোট ধারণক্ষমতার ৮০ শতাংশ করে পরীক্ষা নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে তিনি জানান।
এর আগে তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার নির্ধারিত তারিখ থেকে দুইমাস পেছানো হয়। করোনার সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এই তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ১২ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.