তালেবানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সরাসরি বৈঠক

নিউজ ডেস্ক।।

যুক্তরাষ্ট্রের অন্তত দুইজন শীর্ষ কর্মকর্তা তালেবান নেতাদের সঙ্গে সরাসরি বৈঠকে বসেছেন। সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, গত জুলাইয়ে আফগানিস্তানে আল কায়েদা নেতাকে হত্যার পর বাইডেন প্রশাসনের সঙ্গে আফগানিস্তানের বর্তমান ক্ষমতাসীনদের এটা প্রথম বৈঠক।

যুক্তরাষ্ট্রের সেনারা কাবুল ছাড়ার পর ২০২১ সালের আগস্টে আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখল করে তালেবান। কিন্তু এখন পর্যন্ত আফগানিস্তানের এই শাসক গোষ্ঠীকে বিশ্বের কোনো দেশ আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দেয়নি।

বৈঠক নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের দুইজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, কাতারের রাজধানী দোহায় মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ’র উপ পরিচালক এবং আফগানিস্তানে নিযুক্ত পররাষ্ট্র বিভাগের শীর্ষ কর্মকর্তা তালেবান প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সাক্ষাতে যান। বৈঠকে তালেবানের গোয়েন্দা প্রধান আব্দুল হক ওয়াসিক উপস্থিত ছিলেন।
গত জুলাই মাসে আল কায়েদা নেতা আইমান আল জাওয়াহিরিকে হত্যার পর যুক্তরাষ্ট্র তালেবানের বিরুদ্ধে দোহা চুক্তির ‘স্পষ্ট এবং মারাত্মক’ লঙ্ঘনের অভিযোগ তোলে। ২০২০ সালের ২৯ ফেব্রুয়ারি দোহায় ট্রাম্প প্রশাসনের করা চুক্তির অন্যতম শর্ত ছিল– ‘কোনো সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকে আফগানিস্তানের মাটি ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না।

ড্রোন হামলায় আয়মান আল জাওয়াহিরিকে হত্যার দাবি করার পর তালেবান ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে। এই ঘটনার পর যুক্তরাষ্ট্রের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা প্রথম সরাসরি তালেবান নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

তবে বৈঠকে সঠিক কী আলোচনা হয়েছে সেটা জানা না গেলেও ‘কাউন্টার টেররিজম’ নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।