ডিপ্লোমা পাসে নৌবাহিনীর চাকরী

অনলাইন ডেস্ক।।

বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে বি-২০২২ ব্যাচে নৌবাহিনীর জাহাজের জন্য টেকনিক্যাল শাখায় ডাইরেক্ট এন্ট্রি আর্টিফিসার চতুর্থ পদে জনবল নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। সরকার অনুমোদিত পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট থেকে ডিপ্লোমা পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন।

ইতোমধ্যে অনলাইনে আবেদন শুরু হয়েছে। ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত আবেদন করা যাবে।

যেসব শাখায় নিয়োগঃ

১. ইঞ্জিনিয়ারিং শাখা

২. ইলেকট্রিক্যাল শাখা

৩. রেডিও ইলেকট্রিক্যাল শাখা

৪. অর্ডিন্যান্স শাখা

আবেদনের যোগ্যতাঃ
ইঞ্জিনিয়ারিং শাখায় আবেদনের জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতা ডিপ্লোমা ইন মেরিন টেকনোলজি, পাওয়ার, মেকানিক্যাল বা রেফ্রিজারেশন অ্যান্ড এয়ার কন্ডিশনিং। ইলেকট্রিক্যাল শাখার জন্য ডিপ্লোমা ইন ইলেকট্রিক্যাল পাস হতে হবে। রেডিও ইলেকট্রিক্যাল শাখায় আবেদন করতে ডিপ্লোমা ইন ইলেকট্রনিকস, কম্পিউটার বা ইলেকট্রনিকস অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন। অর্ডিন্যান্স শাখার জন্য ডিপ্লোমা ইন ইলেকট্রিক্যাল বা মেকাট্রনিকস পাস হতে হবে। সব শাখায় আবেদনের জন্য কমপক্ষে সিজিপিএ-৩.০০ থাকতে হবে। বয়স ০১ জুলাই ২০২২ তারিখে ১৮ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে।

শারীরিক যোগ্যতাঃ
বিজ্ঞপ্তি অনুসারে ডাইরেক্ট এন্ট্রি আর্টিফিসার চতুর্থ পদে আবেদনের জন্য উচ্চতা ৫ ফুট ৫ ইঞ্চি, বুকের মাপ ৩০ থেকে ৩২ ইঞ্চি, সম্প্রসারিত ৩৪ ইঞ্চি। বয়স ও উচ্চতা অনুযায়ী নির্দিষ্ট ওজন ও চোখের দৃষ্টি ৬/৬। বৈবাহিক অবস্থা বিবাহিত/অবিবাহিত।

যেভাবে আবেদনঃ
আগ্রহী প্রার্থীদের এ ওয়েবসাইটে ঢুকে ‘অ্যাপ্লাই নাউ/চেক নাউ’ অপশনে ক্লিক করে আবেদনের পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে। এরপর প্রার্থীকে ব্যাংকিং বা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা জমা দিতে হবে। আবেদন ফি ২০০ টাকা পাঠাতে হবে। আবেদন ফি পাঠানোর পর সঠিক তথ্য দিয়ে অনলাইনে আবেদন ফরমটি পূরণ করতে হবে। পূরণ করা শেষে ‘নাবিক-২’ ফরমটি ডাউনলোড করে পরীক্ষার দিন প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ সঙ্গে আনতে হবে। যদি কেউ প্রথমে আবেদন ফরমটি ডাউনলোড করতে ব্যর্থ হন, তাহলে আবার লগইন করে ডাউনলোড ও প্রিন্ট করা যাবে। নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানা যাবে এই লিংকে

সুযোগ-সুবিধাঃ
সরকার কর্তৃক নির্ধারিত সুবিধাসহ সশস্ত্র বাহিনীর বেতনক্রম অনুযায়ী বেতন ও ভাতা পাবেন। এ ছাড়া বিনা মূল্যে পোশাক, থাকা, খাওয়া ও চিকিৎসার সুবিধা, হ্রাসকৃত মূল্যে পরিবারের জন্য রেশন ক্রয়ের সুবিধা, অবসর গ্রহণকালে অবসর ভাতা ও গ্র্যাচুইটির সুবিধা, চাকরিকালে যোগ্যতার ভিত্তিতে নন–কমিশন্ড অফিসার, জুনিয়র কমিশন্ড অফিসার এবং বিশেষ যোগ্যতার একজন নাবিকের ক্ষেত্রে কমিশন্ড অফিসার পদে পদোন্নতির সুযোগ, চাকরিরত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করলে বা পঙ্গু হলে বিমা–সুবিধা এবং পরিবারের জন্য আর্থিক সুবিধা, জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে বিদেশ ভ্রমণের মাধ্যমে আর্থিক স্বচ্ছলতা অর্জনের সুযোগ, সন্তানদের জন্য ক্যাডেট কলেজ, আর্মড ফোর্সেস মেডিক্যাল কলেজ, মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি এবং নৌবাহিনীর স্কুল–কলেজে অধ্যয়নের সুযোগ, বাসস্থানপ্রাপ্তি ও সামরিক হাসপাতালগুলোয় চিকিৎসার সুবিধা পাওয়ার সুযোগ।