টঙ্গীতে প্রস্তুতি চলছে বিশ্ব ইজতেমার

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগ নদের তীরে পুরোদমে চলছে তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমার ময়দানের প্রস্তুতি। স্বেচ্ছাশ্রমে বাঁশের খুঁটি স্থাপন এবং তাতে ত্রিপল টানানোসহ নানা কার্যক্রম চালাচ্ছেন মুসল্লিরা।

এবারও দুই পর্বে অনুষ্ঠিত হবে দেশের বৃহত্তম এই জমায়েত। ১৩ থেকে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত প্রথম পর্বে মাওলানা জোবায়েরপন্থিরা এবং ২০ থেকে ২২ তারিখ দ্বিতীয় পর্বে জড়ো হবেন ওয়াসিফপন্থিরা।

গাজীপুর, ঢাকা ও আশপাশ থেকে নিজ উদ্যোগে আসা সংগঠনের সাথিরা প্রস্তুতিমূলক কাজগুলো করছেন। এছাড়া মুসল্লিদের নিরাপত্তাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে তৎপর স্থানীয় প্রশাসনও। ২০২০ সালের পর করোনার কারণে দু’বছর ইজতেমা হয়নি।

১৫ জানুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ২০২৩ সালের প্রথম পর্বের সমাপ্তি ঘটবে। চার দিন বিরতি দিয়ে ২০ জানুয়ারি ওয়াসিফপন্থিরা দ্বিতীয় পর্বে অংশ নিয়ে ২২ জানুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে এবারের আয়োজনের সমাপ্তি ঘটাবেন।

মঙ্গলবার তুরাগ নদের তীরের ময়দানে কথা হয় রাজধানীর কারওয়ান বাজারের মনজিল হোসেন তালুকদারের সঙ্গে। তিনি বলেন, কারওয়ান বাজার এলাকায় মঙ্গলবার সাপ্তাহিক ছুটি থাকে। তাই স্থানীয় আম্বর শাহ জামে মসজিদ থেকে আমরা ৫৫ জন মুসল্লি এসেছি ইজতেমার কাজ করতে। কেউ মাটি কাটছি, বাঁশ গাড়ছি, উঁচু-নিচু জায়গা সমান করছি, কেউবা আবার তাঁবু টানানোর ব্যবস্থা করছি।

রাজধানীর মিরপুরের মোবারক মিয়া বলেন, ব্যস্ততার মধ্যেই একটু সুযোগ পেয়ে আল্লাহকে খুশি করার জন্য ইজতেমা ময়দানে কাজ করতে এসেছি।

প্রথম পর্বের মিডিয়া সমন্বয়কারী মুফতি জহির ইবনে মুসলিম বলেন, দুই বছর পর ইজতেমার খবর শুনে দেশ-বিদেশের মুসল্লিরা অনেক আনন্দিত। এ উপলক্ষে গত ২-৫ ডিসেম্বর তিন চিল্লার সাথিদের নিয়ে টিনশেডে স্বল্প পরিসরে পরামর্শ করা হয়েছে।

টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি শাহ আলম বলেন, আগামী ১৩ জানুয়ারি প্রথম পর্বের বিশ্ব ইজতেমা সঠিকভাবে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে পুলিশ কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলামের দিকনির্দেশনায় ময়দানের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় কাজ চলছে।