জিলা কলেজের ভর্তি বন্ধ করলো চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

শিক্ষার্থী সংকট, নিয়মিত অধ্যক্ষ না থাকা, প্রদত্ত ঠিকানায় গরমিলসহ নানা কারণে চট্টগ্রাম জিলা কলেজে শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ। এর ফলে ২০২৩ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে কোনো শিক্ষার্থী ভর্তি করাতে পারবে না প্রতিষ্ঠানটি। এর আগেও একই কারণে আরও চারটি কলেজে ভর্তি কার্যক্রম বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় শিক্ষা বোর্ড।

চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক জাহেদুল হক বলেন, ‘সরেজমিনে চট্টগ্রাম জিলা কলেজে গিয়ে নানা অনিয়ম-অব্যবস্থাপনার প্রমাণ পেয়েছি আমরা। প্রতিষ্ঠানটি কাগজে-কলমে যে ঠিকানা উল্লেখ করেছে বাস্তবে গিয়ে সেখানে কলেজটির অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়নি। কলেজটিতে দীর্ঘদিন ধরেই নেই অধ্যক্ষ; নিয়মিত শিক্ষকও তেমন নেই। শিক্ষার্থীর সংখ্যাও সন্তোষজনক নয়। এখানে দীর্ঘদিন ধরে নেই কোনো কমিটিও। এতে আমরা হতবাক হয়েছি।’

তিনি বলেন, এ অবস্থায় একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চলতে পারে না। তাই সবকিছু বিবেচনা করে চট্টগ্রাম জিলা কলেজে শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ। এর ফলে নতুন বছরে কোনো শিক্ষার্থী ভর্তি করাতে পারবে না প্রতিষ্ঠানটি।

একই কারণে গত মাসে নগরের আগ্রাবাদ এলাকার চট্টগ্রাম সিটি বিজ্ঞান কলেজ, কাজীর দেউড়ি এলাকার মেট্রোপলিটন কমার্স কলেজ, চকবাজার এলাকার ল্যাবরেটরি কলেজ ও কোতোয়ালী এলাকার সিটি পাবলিক কলেজের ভর্তি কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করে শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ।

এছাড়াও স্বাধীনতাবিরোধী ব্যক্তির নামে স্থাপন করা প্রতিষ্ঠানের নাম পরিবর্তন না করায় চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার ফজলুল কাদের চৌধুরী আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের পাঠদানের অনুমতিও বাতিল করা হয়।