জিপিএ-৫ পেয়েও কলেজ পাননি তারা

শিক্ষাবার্তা ডেস্কঃ একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদনে কমসংখ্যক কলেজ পছন্দ দিয়ে বিপাকে পড়েছেন চট্টগ্রামের ৯১ শিক্ষার্থী। যার কারণে জিপিএ-৫ পেয়েও এসব শিক্ষার্থী কোনো কলেজ পাননি। তবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ আশ্বস্ত করেছে আবেদনকারীর তুলনায় আসনসংখ্যা বেশি থাকায় সব শিক্ষার্থীই ভর্তির সুযোগ পাবেন। তবে ঠিক কোন প্রক্রিয়া এসব শিক্ষার্থী কলেজ পাবেন, সেটি এখনো নিশ্চিত নয়।

জানা গেছে, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদনে ১০টি কলেজকে পছন্দক্রম তালিকায় রাখা যায়। তবে অনেক শিক্ষার্থী তা না করে কমসংখ্যক পছন্দ দিয়ে ভর্তির আবেদন করেছেন। বিশেষ করে প্রথম সারির কলেজগুলোই পছন্দ তালিকায় দিয়েছেন প্রায় শিক্ষার্থী।

এদিকে, শেষ দফায় প্রকাশিত ফলাফলের পর নতুন করে শিক্ষার্থীরা ভর্তির আবেদন করতে পারবেন না। ফলে কলেজ না পাওয়া এসব শিক্ষার্থীকে অপেক্ষা করতে হবে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তের ওপর। এখন আন্তশিক্ষা বোর্ড ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে এসব শিক্ষার্থীর ভাগ্য।

এর আগে গত ১৮ জানুয়ারি একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির শেষ ধাপের আবেদনের ফলাফল প্রকাশিত হয়। এতে ৮ হাজার ৬৪২ জন শিক্ষার্থী ভর্তির জন্য কোনো কলেজ পাননি; যার মধ্যে ৯১ জন জিপিএ-৫ পেয়ে এসএসসি উত্তীর্ণ।

জানা যায়, সর্বোচ্চ জিপিএ-৫ পাওয়া মোট ১৮ হাজার ৬৮৮ জনের মধ্যে চট্টগ্রাম বোর্ডের অধীন কলেজগুলোয় ভর্তির জন্য আবেদন করেন ১৮ হাজার ৯৩ জন। এর মাঝে শেষ ধাপ পর্যন্ত ১৮ হাজার ২ জন ভর্তির জন্য মনোনীত হয়েছেন।

চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের অধীন কলেজগুলোয় ভর্তির জন্য মোট আবেদনকারী ১ লাখ ২৮ হাজার ৭৬৩ জন। এর মধ্য থেকে প্রথম ও দ্বিতীয় তালিকায় মনোনীতদের মাঝে ভর্তির প্রাথমিক নিশ্চায়ন করেন ১ লাখ ১২ হাজার ১১৫ জন। প্রকাশিত তৃতীয় ধাপের ফলাফলে মনোনীত হয়েছেন ৮ হাজার ৬ জন। সব মিলিয়ে ১ লাখ ২০ হাজার ১২১ শিক্ষার্থী ভর্তির জন্য নির্বাচিত হয়েছেন। চট্টগ্রাম বোর্ডে এবার ১ লাখ ৭৪ হাজার আসন রয়েছে।

চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর জাহেদুল হক জানান, তিন ধাপে যেসব শিক্ষার্থী মনোনীত হয়েছেন তাদের ভর্তি কার্যক্রম শেষ করার পর কলেজ না পাওয়া শিক্ষার্থীদের বিষয়ে মন্ত্রণালয় ও আন্তবোর্ড সিদ্ধান্ত নিতে পারে। তবে মোট আবেদনকারীর তুলনায় আসনসংখ্যা বেশি থাকায় সব শিক্ষার্থীই ভর্তির সুযোগ পাবেন। কিন্তু কোন প্রক্রিয়ায় তারা ভর্তি হবেন তা মন্ত্রণালয় ও আন্তবোর্ড সিদ্ধান্ত-নির্দেশনা দিলে তখন বলতে পারব।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/এএইচএম/০১/২১/২৩